1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৬:৩৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ উপেক্ষিত : দু’জনের অধিক আরোহী নিয়েই চলছে মোটর সাইকেল

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৯ জুন, ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার ::
দেশে সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া হত্যাকান্ডগুলোতে ঘাতকরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার ক্ষেত্রে মোটর সাইকেল ব্যবহার করছে। সর্বশেষ চট্টগ্রামে এসপি বাবুল আকতারের স্ত্রী মিতু হত্যাকান্ডে সিসি টিভির ফুটেজে ধরা পড়ে মোটর সাইকেলে করে ঘাতকদের পালিয়ে যাওয়ার দৃশ্য। মোটর সাইকেলটিতে ঘাতকরা সংখ্যায় ৩জন ছিল। এ হত্যাকান্ড ছাড়াও দেশের বিভিন্ন এলাকায় ঘটে যাওয়া হামলার ঘটনাগুলোর পর প্রত্যক্ষদর্শীরা পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে যে তথ্য দিয়েছেন তাতে একাধিক ঘটনায় হামলাকারীরা মোটর সাইকেল ব্যবহার করেছে। সম্প্রতি এ বিষয়টি পর্যালোচনা করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ২জনের বেশি আরোহী নিয়ে মোটর সাইকেল চলাচল বন্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু এ নির্দেশনার পরও সুনামগঞ্জের বিভিন্ন সড়কে ৩জন আরোহী নিয়েই চলছে মোটর সাইকেল।
গতকাল বুধবার শহরের উকিলপাড়া, আলফাত স্কয়ার, হোসেন বখত চত্বর, বিহারী পয়েন্ট, কাজিরপয়েন্ট, কালীবাড়ি রোড, পুরাতন বাসস্টেশনসহ বিভিন্ন সড়কসমূহে ২জনের অধিক আরোহী নিয়ে মোটর সাইকেল চলতে দেখা গেছে। এসব মোটর সাইকেলের কয়েকটি আবার রেজিস্ট্রেশন বিহীনও ছিল। বিশেষ করে শহরের হাসপাতাল রোড হয়ে বিহারী পয়েন্ট, হোসেন বখ্ত চত্বর, কালীবাড়ি ও পুরাতন বাসস্টেশন রোডে দু’জনের অধিক আরোহী নিয়ে চলাচল করেছে এসব মোটর সাইকেল।
সুনামগঞ্জ সদর ট্রাফিক অফিসের দেয়া তথ্য অনুযায়ী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশের পর দু’জনের অধিক আরোহী নিয়ে চলাচলকারী মোটর সাইকেলের বিরুদ্ধে শীঘ্রই অভিযান শুরু হচ্ছে। তবে আরো কঠোর নজরদারিতে আনা হচ্ছে এসব মোটর সাইকেল। ইতিমধ্যে শহরের বিভিন্ন সড়কে চেকপোস্টের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশনবিহীন ও অবৈধ যানবাহন আটকের অভিযান পরিচালিত হচ্ছে।
অন্যদিকে, শহরের উঠতি বয়সীরা ২জনের অধিক আরোহী নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সড়কে মোটর সাইকেল চালানোর বিষয়টির সমালোচনা করছেন সুধী মহল। তাদের মতে সরকার যেখানে দেশের চলমান পরিস্থিতিতে মোটরসাইকেলে ২জনের বেশি আরোহী না নেয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছে সেখানে এ নির্দেশ অমান্য করাটা অন্যায়ের মধ্যেই পড়ে। একের পর এক হত্যাকান্ডগুলোর সাথে মোটরসাইকেলের সম্পৃক্ততা থাকায় এসব দুই চাকার যানের উপর নজরদারি বাড়ানো ও এগুলোকে নিয়মের মধ্যে আনাটাও যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত বলেই মনে করছেন তারা।
শহরের হাছননগর এলাকার বাঁধন আল আজাদ বলেন, ‘সরকারের নির্দেশনা সত্ত্বেও শহরে ৩জন আরোহী নিয়ে মোটরসাইকেল চলাচল করছে। এসব মোটরসাইকেলের অধিকাংশরই আবার পেছনে রেজিস্ট্রেশন নম্বর নেই। যারা এভাবে সড়কে মোটরসাইকেল নিয়ে বের হচ্ছেন তাদেরকে সরকারের নির্দেশনাটাও মেনে চলা উচিত।’
এ ব্যাপারে ট্রাফিক সার্জেন্ট সালাউদ্দিন কাজল বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনার পর থেকে আমরা ৩জন আরোহী নিয়ে চলাচলকারী মোটরসাইকেল আটকের অভিযান শুরু করছি। শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কে যারা এখনো ২জনের অধিক আরোহী নিয়ে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’
উল্লেখ্য, সোমবার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘এখন থেকে এক মোটরসাইকেলে যাতে তিনজন চলাফেরা করতে না পারে তা নিশ্চিত করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী যেকোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। এখন থেকে মোটর সাইকেলে তিনজন চলা যাবে না। তিন জন চললে বাধা দেয়া হবে। লাইসেন্স চেক করা হবে। তিনি চট্টগ্রামের এসপি বাবুল আকতারের স্ত্রী হত্যাকান্ড নিয়ে বলেন, এসপিপতœী মিতু হত্যার ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি আমরা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি। পুলিশ সদস্যদের মনোবল ভেঙে দিতেই জঙ্গিরা এই ধরনের হত্যাকান্ড চালাচ্ছে। পুলিশ কর্মকর্তাদের পরিবারের নিরাপত্তার বিষয়টি আমরা দেখব।’

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com