1. [email protected] : admin2017 :
  2. [email protected] : Sunam Kantha : Sunam Kantha
  3. [email protected] : wp-needuser : wp-needuser
সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

স্পট : জগন্নাথপুর খাসিলা গ্রাম : শিপন ও দুদু গ্রুপের বন্দুকযুদ্ধ

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ জুন, ২০১৬

১১জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ৩০
স্টাফ রিপোর্টার ::
বিকেল সাড়ে ৫টা। রমজানের প্রথম দিন হওয়ায় ইফতার নিয়ে ব্যস্ততা ছিল সাধারণ মানুষের মাঝে। তবে এ সময়টা জগন্নাথপুরের কলকলিয়া ইউনিয়নের খাসিলা গ্রামের মানুষের কাছে ছিল আতঙ্কের। এলাকার শিপন আর দুদু গ্রুপের পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে শুরু হয় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ। চারদিকে গুলির আওয়াজ। প্রায় ঘণ্টাব্যাপী স্থায়ী হয় এ সংঘর্ষ। যার কারণ ছিল দু’গ্রুপের আধিপত্য বিস্তার।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কলকলিয়া ইউপির খাসিলা গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হন কমপক্ষে ১১জন। তাদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সিলেট এমএজি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধরা হলেন সুমন মিয়া, আজাদ মিয়া, মানিক মিয়া, আজাদুর রহমান, আব্দুল হাফিজ, জাবেদ মিয়া, মায়ন উল্লাহ, জাহেদ আহমদ, নবাব মিয়া, মুক্তার মিয়া, শফিক মিয়া।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, খাসিলা গ্রামের শিপন মিয়া ও দুদু মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পূর্ব বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় একটি মাছের খামার দখল করা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তারা।
এক পর্যায়ে দু’পক্ষের লোকজন বন্দুকযুদ্ধে লিপ্ত হন। এতে উভয়পক্ষে শিশুসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হন।
স্থানীয়দের মতে, সংঘর্ষের সময় দুই গ্রুপের লোকজনের মধ্যে কমপক্ষে ২০ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়।
এ ঘটনায় অন্যান্য আহতরা হলেন রুবেল মিয়া (২৪), তুহেল মিয়া (২৮), রুহেল মিয়া (২৭), ছালিক মিয়া (১১), সাহেদ আহমদ (২৫), লিলিক মিয়া, সালেহ আহমদ (২০), হান্নান মিয়া (৩৬), মিঠু (৩০), কয়েল মিয়া (৩৫), রফিক মিয়া (২৫), ছৈদুর রহমান (২৩), জাহিদ মিয়া (৩০), আবু তাহের (২৬), ফজলু মিয়া (২৮), ফিরোজ মিয়া (৩৭), আজহার আলী (৩৮), মান্নান মিয়া (৩২), আলী আহমদ (২০), শাকির আহমদ (২৪), ফজলু মিয়া (৩৮), শাহানাজ মিয়া (৩৬), ডায়না মিয়া (২৬), লিটন মিয়া (৪০), ফরিদ মিয়া (৩৩), দুদু মিয়া (৩৬), জমির আলী (২৯), সুজন মিয়া (৩৫), রায়েল মিয়া (২৮)।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com