1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে কাজ করছে জেএমবি

  • আপডেট সময় সোমবার, ৩০ মে, ২০১৬

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে কাজ করছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহেদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)। যোগাযোগের জন্য নিজস্ব নেটওয়ার্ক তৈরি করেছে সংগঠনটি।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রেজাউল করিম হত্যাকান্ডের পর গ্রেফতার হওয়া চার জেএমবি সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য জানিয়েছে বলে পুলিশের দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।
২০০৪ সালে রাজশাহীর বাগমারাসহ আশপাশের এলাকায় বাংলা ভাই ও তার সহযোগীদের কার্যক্রম ছিলো প্রকাশ্য এবং দাপটের সাথে। ওই সময় পুলিশ, রাজনৈতিক নেতা ও সাধারণ মানুষসহ ১৯ জনকে হত্যা করা হয়। ২০০৫ সালে দেশজুড়ে বোমা বিস্ফোরণের মধ্যদিয়ে নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছিলো তারা।
তবে এরপর জেএমবির কার্যক্রম নিষিদ্ধ করে দেওয়া এবং শায়েখ রহমান ও বাংলাভাইসহ ৬ জেএমবি নেতার ফাঁসি কার্যকর হলে অন্তরালে চলে যায় সংগঠনটির সদস্যরা।
সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বিভিনস্থানে হামলা ও গুপ্ত হত্যার পর আবারও উঠে এসেছে নিষিদ্ধ এই সংগঠনটির নাম। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যাকান্ডের ঘটনায় গ্রেফতার কয়েকজন পুলিশের কাছে জেএমবির কর্মকান্ডের বর্ণনা দিয়েছেন। তবে পুলিশ বলছে, সংগঠনটির মাঠ পর্যায়ের সদস্যদের খুব বেশি তথ্য জানতে দেওয়া হয় না। নিজেদের আসল নাম পরিচয় ও ব্যবহার করেন না তারা।
গ্রেফতারদের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. শামসুদ্দিন জানান, জেএমবি এক স্তরের সদস্য তাদের উপরের স্তরের সদস্যদের স¤পর্কে জানেন না। যেটুকু তাদের জানানো হয়, তারা সেটুকুই জানেন। কোনো মিশন স¤পর্কে একজন তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাই তাদের উচ্চ পর্যায়ে কতজন আছে তা জানা সম্ভব হচ্ছে না। এছাড়াও জেএমবি সদস্যরা বাবা-মা’র দেওয়া নাম ব্যবহার করেন না। সংগঠন থেকে তাদের একটি কোড নাম দেওয়া হয়। ওই নামেই সংগঠনে তাদের চেনে সবাই। তাই সংগঠনের দেওয়া নাম পুলিশ জানতে পারলেও প্রকৃত পরিচয় জানা কঠিন হয়ে যায়। এদিকে, জেএমবির কর্মকান্ডে এরই মধ্যে নতুন করে জড়িয়েছে অনেক শিক্ষার্থী, আবার অক্ষরজ্ঞানহীন দিনমজুরও তাদের সাথে জড়িত। জেএমবির বর্তমান কার্যক্রম অনেকটাই তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর। মোবাইল ট্র্যাকিং এড়াতে নিজস্ব নেটওয়ার্ক ব্যবহার করছেন তারা।
পুলিশ কমিশনার মো. শামসুদ্দিন জানান, রাজশাহী অঞ্চলে জেএমবি প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে কাজ করছে। নিজস্ব কমিউনিকেশন মাধ্যম তারা তৈরি করেছে। ফলে সাধারণ কমিউনিকেশ মাধ্যমে তাদের শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে না। জেএমবি সদস্যরা সাধারণ কথা-বার্তা মোবাইল ফোনে বললেও, সাংগঠনিক ও অপরাধমূলক কথাবার্তা ল্যাপটপে নিজস্ব সফটওয়্যারের মাধ্যমে ইমেইল ও বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে কথা বলেন।
গ্রেফতার চারজনকে জিজ্ঞসাবাদে আরও বেশ কিছু তথ্য পাওয়া গেছে জানিয়ে পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘গ্রেফতারকৃতরা জেএমবির কর্মকান্ড, প্রশিক্ষণ, উদ্দেশ্য, চাঁদা গ্রহণ ও বিতরণ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। জেএমবি সদস্যরা মানসিকভাবে খুব শক্তিস¤পন্ন। খুব সহজেই মুখ খোলেন না।’
খেজুর গাছ থেকে রস সংগ্রহের উদাহরণ দিয়ে পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘খেজুর গাছ থেকে যেমন এক ফোটা এক ফোটা রস রাতভর জমে হাড়ি ভরে যায়। আমরাও একই কায়দায় এসব তথ্য সংগ্রহ করছি। দীর্ঘদিন নিষ্ক্রিয় থাকার পর কোনো শক্তির ইঙ্গিতে জেএমবি কার্যক্রম বাড়িয়ে দিয়েছে। তবে আমরা সচেষ্ট আছি।’
গত ২৩ এপ্রিল রাজশাহীর শালবাগান এলাকায় নিজ বাড়ি থেকে কিছু দূরে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনার নিহত শিক্ষকের ছেলে বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা করেন। পরে চারজন জেএমবি সদস্যসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com