1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়ক : লক্কর-ঝক্কর বাস আর কতদিন চলবে?

  • আপডেট সময় রবিবার, ২৯ মে, ২০১৬

শামছুল কাদির মিছবাহ ::
স্বাধীনতার পর থেকেই সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে লক্কর-ঝক্কর বাস দিয়ে যাত্রী পরিবহন চলছে। বর্তমান সময়ে রাস্তার হাল পরিবর্তন হলেও বেহাল রয়েছে যাত্রী পরিবহন সেবা। মান্ধাতা আমলের বাস দিয়ে পরিবহনের ফলে প্রতিনিয়ত ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রী সাধারণ। দীর্ঘদিন ধরে যাত্রীরা দুর্ভোগ পোহালেও এই সড়কে নতুন বাস নামানোর কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে না। পুরনো-ফিটনেসবিহীন ওইসব বাসে আবার অতিরিক্ত যাত্রী উঠানো হয়। এবং পথে পথে বাস থামিয়ে যাত্রী উঠা-নামা করা হয়। যাত্রীরা এসবের প্রতিবাদ করলে বাসের হেলপার ও ড্রাইভাররা যাত্রীদের সাথে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। এবং কোনো কোনো সময় যাত্রীদের নাজেহাল করা হয়ে থাকে। সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে দীর্ঘদিন ধরে এই যাত্রী দুর্ভোগ চলে আসলেও নীরব ভূমিকায় রয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে বাসে চলাচলকারী ভোক্তভোগী যাত্রীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে সড়কের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু যাত্রীবাহী বাসের কোনো উন্নতি হয়নি। মান্ধাতা আমলের বাসগুলো এখানকার মানুষের কাছে ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অধিকাংশ বাসের বডি দেখে মনে হয় এটি বাস না, ময়লা ফেলার গাড়ি। কিছু কিছু বাসের বডির যতসামান্য উন্নতি ঘটলেও ইঞ্জিনের অবস্থা খুবই খারাপ। ফলে প্রায় সময়ই কোন না কোন সড়কে এসব যাত্রীবাহী বাস বিকল হয়ে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এবং বাস দুর্ঘটনার শিকার হয়। প্রতিটি বাসের বডি ইঞ্জিনের যেমন খারাপ অবস্থা তেমনি বাসের ভিতরের পরিবেশও খুবই খারাপ। নির্ধারিত যাত্রীর চেয়ে অধিক যাত্রী উঠানোর ফলে গাদাগাদি হয়ে আসনে বসতে হয়। বিশেষ করে গরমের দিনে অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয় যাত্রীদের।
সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্রী ফেরদৌসী আক্তার বলেন, সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে নামেই কেবল বিরতিহীন বাস। বাস্তবে লোকালবাস। কারণ ওইসব বাস যত্রতত্র থামিয়ে যাত্রী উঠা-নামা করে। এবং ওইসব ফিটনেসবিহীন বাসে চড়ার সময় সারা পথ দুর্ঘটনার আশঙ্কায় থাকতে হয়। উপরন্তু অতিরিক্ত যাত্রীবহন তো আছেই।
শহরের সুরমা মার্কেটের ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিন বাবু বলেন, সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে ফিটনেসবিহীন বাসের কারণে ১ ঘণ্টার পথ যেতে সময় লাগে ২ ঘণ্টা। এভাবে লক্কর-ঝক্কর বাস আর কতোদিন চলবে। এই রুটে নতুন বাস নামানো এখন সময়ের দাবি।
বাস যাত্রী মাসুম বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার অনেক উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু যাত্রী পরিবহনে বাসগুলোর কোনো উন্নতি হয়নি। তিনি বলেন, বিশেষ করে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের বিরতিহীন বাসগুলো সেই মান্ধাতা আমলের। পুরনো এই বাসগুলো বাতিল করে সড়কে নতুন বাস নামানোর দাবি জানান তিনি।
‘সুনামগঞ্জের যুব সমাজ’র অন্যতম উদ্যোক্তা ও গণমাধ্যমকর্মী মাহমুদুর রহমান তারেক বলেন, সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে নতুন বাস নামানো এখন সময়ের দাবি। এমন ভোগান্তি আর সহ্য করা যাচ্ছে না। আমরা ‘সুনামগঞ্জের যুবসমাজ’ এ ব্যাপারে সোচ্চার হয়েছি। আমরা সরকারের কাছে দাবি জানাবো। আমাদের দাবিগুলো হল সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে নতুন কিছু বিআরটিসি বাস চালু করা। যেসব গাড়ির ফিটনেস নেই সেগুলোকে বাতিল করা। যাত্রী ছাউনি থেকে শুরু করে পর্যাপ্ত ওয়াসব্লক (টয়লেট)-এর সুবিধাসহ অবকাঠামোগত উন্নয়ন করা। বিরতিহীন বাস নিয়ম অনুযায়ী চলছে কি-না বা যাত্রাপথে সড়কে বার বার থামছে কিনা তার উপর নজরদারি বাড়ানো। হেলপার দিয়ে গাড়ি না চালানো। গাড়ির আসন সংখ্যা অনুযায়ী যাত্রী পরিবহন করা ও সড়কে নতুন বাস নামানো। এছাড়াও নাগরিকদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন প্রতিষ্ঠিত করতে লিফলেট বিতরণ, মানববন্ধন, মাইকিংয়ের কর্মসূচি পালন করা হবে।
সুনামগঞ্জ যুবসমাজের আরেক উদ্যোক্তা নাজমুল হক কিরণ বলেন, সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কে মান্ধাতা আমলের লক্কর-ঝক্কর বাসে যাত্রী পরিবহনের প্রতিবাদে ও নতুন বাস চালুর দাবিতে আমরা ঐক্যবদ্ধ। আগামীকাল (আজ সোমবার) শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে (আলফাত স্কয়ারে) মানববন্ধন কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে সুনামগঞ্জের যুবসমাজ। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট স্মারকলিপি দেয়া হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com