1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ১২:৪২ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলুন

  • আপডেট সময় রবিবার, ২৯ মে, ২০১৬

দৈনিক সুনামকণ্ঠে সুনামগঞ্জ শহরের আরপিনগর-তেঘরিয়া এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে এক সংঘর্ষের ঘটনার প্রেক্ষিতে দুইটি সংবাদ শিরোনাম করা হয়েছে। শিরোনামগুলো হলোÑ (১) শহরে যুবকের উপর গুলি : দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫ ও (২) ফরহাদের বিরুদ্ধে আবারো গুলি নিক্ষেপের অভিযোগ। সারাদেশে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত এমন সংঘর্ষ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটছে, হতাহত হচ্ছে লোকজন। একজন সাংসদ একটি ৮/৯ বছরের বালককে গুলি করেছেন, এমন অসম্ভব ও অদ্ভুত ঘটনাও ঘটেছে এ দেশে। সংঘাতময় রাজনীতি ও সামাজিক নৈরাজ্যের কারণে সন্ত্রাস ছড়িয়ে পড়ছে। সুনামগঞ্জ সে সামাজিক অস্থিরতার বাইরের কোনও স্থান নয়। এখানেও সে অশুভ সমাজবাস্তবতার ঢেউ এসে আছড়ে পড়েছে। কিছু দিন আগে তো প্রকাশ্য দিবালোকে জনাকীর্ণ কাজীর পয়েন্ট এলাকায় এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে কতিপয় দুর্বৃত্ত। আর এবার একজন এক যুবককে গুলি করেছে। এই লোক কিছুদিন আগে আরেকবার গুলি করেছিল। কিন্তু অদ্ভুত কারণে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা সচল হতে পারেনি।
বোধোদয় হতে বাকি থাকে না যে, প্রকৃতপ্রস্তাবে সুনামগঞ্জের শান্তিময় মানবিক পরিবেশ অশান্ত হয়ে উঠছে ক্রমে ক্রমে। এখানে নিরাপদে, নির্বিঘেœ, নির্ভয়ে জীবনযাপনের ঐতিহ্যিক ভাবমূর্তি ভেঙে পড়ছে সন্ত্রাসী আতঙ্কের অভিঘাতে। সার্বিক অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে যে, সামাজিক অস্থিরতা আর নিরাপত্তাহীনতার এক অতল অন্ধকারে তলিয়ে যাবার অপেক্ষায় আছে সুনামগঞ্জ। এখানে জনজীবন আতঙ্কের হিমস্পর্শে স্থবিরতার আক্রমণ ক্রমে প্রবল হচ্ছে।
অভিজ্ঞমহল মনে করেন এখনও সময় আছে, অধঃপতন ঠেকানোর। সে জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ, বিশেষ করে জেলা প্রশাসনের এখনই জরুরিভিত্তিতে জননিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণে তৎপর হতে হবে। তাছাড়া সমাজের সচেতন মানুষজনের পক্ষ থেকে এইরূপ সংঘর্ষ ও তার জের ধরে খুনাখুনিতে লিপ্ত হওয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলতে হবে। সন্ত্রাস ও সামাজিক দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলনের চেয়ে বেশি কার্যকর আর কোনও উপায় আপাতত পরিলক্ষিত হচ্ছে না। এমতাবস্থায় যেটা দরকার, সেটা হলো, দলমত নির্বিশেষে সকল স্তরের ও ভিন্নমতের মানুষজনের একসঙ্গে মিলে এই অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে সংগ্রামে ব্রতী হওয়া। কিন্তু তারও আগে চাই অতিসত্বর সমাজবিরোধী দুর্বৃত্তদের হাতে যে সব আগ্নেয়াস্ত্র আছে, সেগুলো উদ্ধারের অভিযান পরিচালনা করা, যেটা সবচেয়ে আগের কর্তব্য তো বটেই, সবচেয়ে জরুরিও।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com