1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

পুলিশের প্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশ : আপিল বিভাগের রায় মেনে না চললে বিভাগীয় ব্যবস্থা

  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৪ মে, ২০১৬

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
বিনা পরোয়ানায় আটক ও রিমান্ড সংশোধনী বিষয়ে আপিল বিভাগের রায় মেনে চলতে পুলিশের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। রায় না মানলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। ৫৪ ধারা নিয়ে হাইকোর্টের রায়ের পর তিনি এক প্রতিক্রিয়ায় এ কথা জানান।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পূর্ণাঙ্গ রায় এলে আমরা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেব।’ এ সময় মন্ত্রী আরও বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধি অনুযায়ী সু¯পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে পুলিশ কীভাবে এবং কারা গ্রেফতার করতে পারবেন। এখনো কিন্তু সেটা হচ্ছে। যে সংস্থা গ্রেফতার করতে যাচ্ছে, পোশাকে সেটা উল্লেখ থাকে।
এ সময় সাংবাদিকেরা বলেন, সাংবাদিক শফিক রেহমানকে গ্রেফতারের সময় বিষয়টি মানা হয়নি বলে অভিযোগ আছে। এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ভেতরে কিন্তু পরিচয় দিয়েই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ছাড়া দলপতি কিন্তু পোশাক পরেই গেছেন।’
মঙ্গলবার ফৌজদারি কার্যবিধির বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার (৫৪ ধারা) ও হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের ধারা (১৬৭ ধারা) প্রয়োগের ক্ষেত্রে একটি নীতিমালা দেওয়ার কথা জানিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল খারিজ করে দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত। ফলে হাইকোর্টের ১৫ দফা নির্দেশনা বহাল থাকলো, যেখানে কাউকে বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার এবং রিমান্ডে নেওয়ার বিধানে পরিবর্তন এনে কিছু নির্দেশনা দেওয়া আছে।
নির্দেশনা অনুযায়ী এখন যা করা যাবে না:
ক. আটকাদেশ দেওয়ার জন্য পুলিশ কাউকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করতে পারবে না। খ. গ্রেফতারের সময় পুলিশ তার পরিচয়পত্র দেখাতে বাধ্য থাকবে। গ. গ্রেফতারের তিন ঘণ্টার মধ্যে কারণ জানাতে হবে এবং গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তির নিকট আত্মীয়কে এক ঘণ্টার মধ্যে টেলিফোন বা বিশেষ বার্তাবাহকের মাধ্যমে জানাতে হবে। ঘ. গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিকে তার পছন্দ অনুযায়ী আইনজীবী ও আত্মীয়দের সঙ্গে পরামর্শ করতে দিতে
হবে। ঙ. গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন হলে ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতি নিয়ে কারাগারের ভেতরে কাচের তৈরি বিশেষ কক্ষে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে হবে। ওই কক্ষের বাইরে তার আইনজীবী ও নিকট আত্মীয় থাকতে পারবেন। জিজ্ঞাসাবাদের আগে ও পরে ওই ব্যক্তির ডাক্তারি পরীক্ষা করাতে হবে। চ. পুলিশ হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগ উঠলে ম্যাজিস্ট্রেট সঙ্গে সঙ্গে মেডিকেল বোর্ড গঠন করবে। বোর্ড যদি বলে ওই ব্যক্তির ওপর নির্যাতন করা হয়েছে, তাহলে সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ম্যাজিস্ট্রেট ব্যবস্থা নেবেন এবং তাকে দন্ডবিধির ৩৩০ ধারায় অভিযুক্ত করা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com