1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২, ১১:৪৪ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01711-368602

ইরা : জনমানুষের কল্যাণে

  • আপডেট সময় শনিবার, ২১ মে, ২০১৬

ফাল্গুনী খানম ::
বাংলাদেশ পৃথিবীর অন্যতম জনবহুল একটি দেশ। স্বাভাবিকভাবেই এমন একটি দেশের ক্ষেত্রে জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থার পূর্ণাঙ্গ উন্নয়ন সর্বদাই অগ্রগণ্য বিষয় হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এবং সার্বিক লক্ষ্য অর্জনও একটি চ্যালেঞ্জ হিসেবে কাজ করে। নিরাপদ পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন এবং উন্নত স্বাস্থ্যাভ্যাস, জনস্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন লক্ষ্যমাত্রাগুলোর অন্যতম বিষয়।
এ লক্ষ্যে ইরা রুরাল ওয়াস প্রকল্প ২০১৩ সালের এপ্রিল থেকে ৩১ মার্চ ২০১৬ পর্যন্ত সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারা বাজার উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে কাজ করেছে। ইউনিয়নগুলো হচ্ছে- দোয়ারা সদর, দোহালিয়া, পান্ডারগাঁও, মান্নারগাঁও ও নরসিংপুর।
ইরা রুরাল ওয়াস প্রকল্প ওয়াটার এইড বাংলাদেশের সহায়তায় এসডিসি-এর অর্থায়নে দরিদ্র ও পিছিয়ে পড়া গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নত স্বাস্থ্যবিধি, নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন সেবা প্রদানের অধিকারভিত্তিক প্রাপ্ততা নিশ্চিত ও পাশাপাশি টেকসই সেবা প্রদানের পদ্ধতি ব্যবহারের জন্য সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করেছে।
ইরা রুরাল ওয়াস ও ওয়াটার এইডের লক্ষ্য- নিরাপদ পানি, স্বাস্থ্যবিধি প্রবর্তন ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা উন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্বের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জীবনমানের উন্নয়ন করা। সার্বিকভাবে দারিদ্রতা দূরীকরণে জনস্বাস্থ্যের উন্নয়ন অবশ্যাম্ভাবী।
দারিদ্রতাকে শুধুমাত্র অর্থনৈতিক বা সামাজিক মাপকাঠিতে দেখলে হবে না। নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশনের ক্ষেত্রেও দারিদ্রতাকে দেখতে হবে। একজন মানুষ ও তার পরিবার বেঁচে থাকার জন্য ন্যূনতম পরিমাণ বিশুদ্ধ পানি যেমন দরকার, তেমনি সামাজিক মর্যাদার সাথে বেঁচে থাকার জন্য দরকার সুষ্ঠু স্যানিটেশন ব্যবস্থার। যে সকল জনগোষ্ঠী দুর্গম এলাকায় বসবাস করে তারা সামাজিকভাবেও অবহেলিত, পেশাগত কারণে অস্পৃশ্য, অর্থনীতিক কারণে সুযোগ থেকে বঞ্চিত, শারীরিক মানসিকভাবে অক্ষমতার শিকার। কিংবা সাংস্কৃতিক ও পরিবেশগত কারণে অন্যায্যতার সম্মুখীন হয়। তাঁরা এই ধরনের দারিদ্রতার সাথে বসবাস করে। এ সকল দরিদ্র ও হতদরিদ্রদের জীবনমান উন্নয়নে ইরা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। কার্যক্রমগুলো হচ্ছে- বিশুদ্ধ খাবার পানির জন্য নলকূপ স্থাপন, আর্সেনিক ও আয়রনমুক্ত পানির জন্য সিডকো প্ল্যান স্থাপন, স্কুল স্যানিটেশন কমপ্লেক্স, নলকূপের প্ল্যাটফর্ম নির্মাণ, আর্সেনিক পরীক্ষা, হ্যান্ডওয়াস ডিভাইস বিতরণ, প্রতিবন্ধী ল্যাট্রিন স্থাপন, পাবলিক ল্যাট্রিন স্থাপন, মা ও কিশোরী সেশন, স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কিত বিভিন্ন দিবস উদ্যাপন, ওপেন বাজেট সভা, স্বাস্থ্যবিধি প্রবর্তন বিষয়ক ক্যাম্পেইনসহ দরিদ্র ও হতদরিদ্রদের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ইরা রুরাল ওয়াসের কর্মীরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।
এই কাজগুলো স্বচ্ছতা নিরূপণ করতে গিয়ে ইরা রুরাল ওয়াসের অ্যাগজিকিউটিভ ডাইরেক্টর সিরাজুল ইসলাম, রুরাল ওয়াসের প্রজেক্ট ম্যানেজার, ইমামুর রহমান, ইরা রুরাল ওয়াসের প্রজেক্ট ম্যানেজার দেবেস চন্দ্র তালুকদারসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ সরেজমিনে কার্যক্রমগুলো পর্যবেক্ষণ করেন। এবং তাঁরা এ সকল কার্যক্রমে বিমুগ্ধ হন।
এদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা সাইফুল ইসলাম ও ৫টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগণ ইরা রুরাল ওয়াসের কাজের ভূয়শী প্রশংসা করেন। এবং ইরা রুরাল ওয়াসের এই কার্যক্রম যাতে অব্যাহত থাকে তাঁরা এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com