শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১০:৫০ পূর্বাহ্ন

Notice :

জগন্নাথপুরে ইউপি নির্বাচন: প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ

মো. শাহজাহান মিয়া ::
জগন্নাথপুরে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ৭টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে মোট ৩৭৯ জন প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দিনব্যাপী নির্দিষ্ট রিটার্নিং অফিসাররা প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেন। পছন্দের প্রতীক পেয়ে প্রার্থীদের সমর্থকরা উপজেলা পরিষদ এলাকায় আনন্দ মিছিল করেন।
জগন্নাথপুর উপজেলার ১নং কলকলিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী আলহাজ্ব আব্দুল হাসিম (চশমা), আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী দ্বীপক কান্তি দে দীপাল (নৌকা), বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী রফিক মিয়া (ধানের শীষ), জাপা’র চেয়ারম্যান প্রার্থী গয়াছ মিয়া (লাঙ্গল) ও স্বতন্ত্র¿ চেয়ারম্যান প্রার্থী সাজিদুর রহমান (আনারস) প্রতীক পেয়েছেন। এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩ টি ওয়ার্ডে নারী সদস্য প্রার্থী ১২ জন ও সাধারণ ৯ টি ওয়ার্ডে পুরুষ সদস্য প্রার্থী ৪১ জনসহ মোট ৫৮ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
২নং পাটলি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী সিরাজুল হক (আনারস), আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আঙ্গুর মিয়া (নৌকা), জাপার চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. দবির মিয়া (লাঙ্গল), বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী রফিকুর রহমান রফু (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আশিক মিয়া শিকদার (মোটর সাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে ৮ জন নারী সদস্য ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ২৮ জন পুরুষ সদস্য প্রার্থীসহ মোট ৪১ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
৫নং চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো. আরশ মিয়া (নৌকা), স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী হারুনুর রশীদ (আনারস), বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী আব্দুর রব (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফারুক মিয়া ময়না (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে ১২ জন নারী সদস্য ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৪০জন পুরুষ সদস্য প্রার্থীসহ মোট ৫৬ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
৬নং রাণীগঞ্জ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী আলহাজ্ব মজলুল হক (আনারস), স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আমেরিকা প্রবাসী আব্দুল হাফিজ (মোটরসাইকেল), আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল ইসলাম রানা (নৌকা), বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী সামছুল ইসলাম (ধানের শীষ) ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সুজায়েল আহমদ (ঘোড়া) প্রতীক পেয়েছেন। এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে ১১ জন নারী সদস্য ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৪৬ জন সদস্য প্রার্থীসহ মোট ৬২ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
৭নং সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী আবুল হাসান (নৌকা), বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ মোছাব্বির আহমদ (ধানের শীষ), জাপা’র চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম কামালী (লাঙ্গল), স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী তৈয়ব মিয়া কামালী (আনারস), স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বদরুল আলম খান (চশমা) ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সৈয়দ তোফায়েল আহমদ (মোটরসাইকেল) প্রতীক পেয়েছেন। এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে ৭ জন নারী সদস্য ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৩৫ জন পুরুষ সদস্য প্রার্থীসহ মোট ৪৮ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
৮নং আশারকান্দি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আইয়ূব খান (চশমা), সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল আহাদ মদরিছ (আনারস), হিরা মিয়া (ঘোড়া), আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহ আবু ইমানী (নৌকা) ও বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফখরুল ইসলাম খান (ধানের শীষ) প্রতীক পেয়েছেন। এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে ১০ জন নারী সদস্য ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৪২ জন পুরুষ সদস্য প্রার্থীসহ মোট ৫৭ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।
৯নং পাইলগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আপ্তাব উদ্দিন (নৌকা), স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলী আফজল (মোটর সাইকেল), বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী জালাল উদ্দিন (ধানের শীষ), স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মাওলানা দবিরুল ইসলাম (চশমা), যুক্তরাজ্য প্রবাসী শামীম হোসাইন (আনারস), হাজী মখলুছ মিয়া (ঘোড়া) ও আবুল কাশেম (টেলিফোন) প্রতীক পেয়েছেন। এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত ৩টি ওয়ার্ডে ১১ জন নারী সদস্য ও সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে ৩৯ জন পুরুষ সদস্য প্রার্থীসহ মোট ৫৭ জন প্রার্থীর মধ্যে বিভিন্ন প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়। সব মিলিয়ে ৭ ইউনিয়নে ৩৬ জন চেয়ারম্যান, ৭১ জন নারী সদস্য ও ২৭১ জন সদস্যসহ মোট ৩৭৯ জন প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী