বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন

Notice :

আজ বিশ্বকবির ১৫৫তম জন্মবার্ষিকী

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
বাংলা সাহিত্যের রেনেসাঁ-পরবর্তী সময়ে আধুনিক যুগের সূচনা তাঁর হাতে। কবিতা, ছোটগল্প, নাটক, গান, প্রবন্ধ – বাংলা সাহিত্যে এমন কোনো শাখা নেই, যাকে তিনি সমৃদ্ধ করেননি। রূপক-সাংকেতিকতার জন্ম দিয়ে বাংলা নাটকে চালু করেছিলেন এর বৌদ্ধিক-রাজনৈতিক প্রয়োগ। মুক্তি দিয়েছিলেন ভক্তিরসের একঘেয়েমি থেকে। তিনিই তো সেই ‘অচলায়তনে’র দাদা ঠাকুর; পুরনো-অচলায়তনের দেয়াল গুঁড়িয়ে যিনি তৈরি করেছেন সম্ভাবনার আগমনী পথ। বাংলা সাহিত্যের নবকালের প্রভাতে আকাশের কিরণ ছড়ানো রবি তিনি সেই সকালের উচ্ছ্বাসেই বলে উঠেছেন, ‘আজি এ প্রভাতে রবির কর, কেমনে পশিল প্রাণের পর…।’
কারো স্বীকার করার প্রয়োজন নেই। দিনের আলোর মতোই এ কথা ¯পষ্ট, তার তৈরি করা পথ ধরেই ভাষা ও সাহিত্যের প্রগতির পথে হেঁটেছেন ভবিষ্যতের অসংখ্য কবি-সাহিত্যিক। এজন্যই রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কবিগুরু।
কবিগুরুর ১৫৫তম জন্মদিনে আজ তার প্রতি থাকল বিন¤্র শ্রদ্ধাঞ্জলি।
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্ম ১২৬৮ সনের ২৫ বৈশাখ। ইংরেজি তারিখ অনুযায়ী দিনটি ছিল ১৮৬১ সালের ৭ মে। তাঁর পূর্বপুরুষের আদি নিবাস ছিল বাংলাদেশে খুলনা জেলার রূপসা উপজেলার পিঠাভোগ গ্রামে। এ গ্রামের কুশারীরা এখনো রবীন্দ্রনাথের আদিপুরুষের চিহ্ন বহন করে চলেছে।
কলকাতার জোড়াসাঁকোর ঠাকুরবাড়িতে জন্ম নিয়েছিলেন কবিগুরু। ঐতিহ্যগতভাবেই এ বাড়ির সবাই ছিলেন সংস্কৃতি অনুরাগী। মহর্ষি দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর ও সারদাসুন্দরী দেবীর চতুর্দশ সন্তান তিনি। ছোটবেলা থেকেই প্রথাগত শিক্ষার প্রতি তার ছিল প্রচন্ড বিরাগ। বাবা দেবেন্দ্রনাথ অভিজাত পরিবারগুলোর প্রথা ভেঙে সন্তানদের বাল্যশিক্ষার ব্যবস্থা করেছিলেন মাতৃভাষায়। রবীন্দ্রনাথ প্রথম কবিতা লেখেন আট বছর বয়সে। তার প্রথম প্রকাশিত রচনা ‘অভিলাষ’। ১৮৭৮ সালে ১৭ বছর বয়সে ব্যারিস্টারি পড়ার জন্য ইংল্যান্ড গেলেও শিক্ষা অসমাপ্ত রেখেই ফিরে আসেন তিনি। ১৮৮৩ সালে মৃণালিনী দেবীর সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। ১৯০৫ সালে বঙ্গভঙ্গ হলে তা রদ করার আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন রবীন্দ্রনাথ। ১৯১৫ সালে তাকে ‘নাইট’ উপাধি দেয় ব্রিটিশ সরকার। কিন্তু জালিয়ানওয়ালাবাগের হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে পরবর্তীতে তা ফিরিয়ে দেন তিনি। ১৯২৩ সালে তিনি প্রতিষ্ঠা করেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়।
তিনি ছিলেন একাধারে কবি, গীতিকার, নাট্যকার, গল্পকার, নাট্য নির্দেশক, অভিনেতা ও চিত্রশিল্পী। ৫২টি কাব্যগ্রন্থ ছাড়াও তার ৩৮টি নাটক, ১৩টি উপন্যাস ও ৩৬টি প্রবন্ধ প্রকাশ হয়েছে। ৯৫টি ছোট গল্প নিয়ে প্রকাশ হয়েছে ‘গল্পগুচ্ছ’। তার নিজের হাতে করা ১ হাজার ৯১৫টি গানের সংকলন ‘গীতবিতান’-এর ইংরেজি অনুবাদ প্রকাশ হলে তার প্রতিভায় বিস্মিত হয়ে পড়েন পৃথিবীর তাবত সাহিত্যবোদ্ধা। তারই স্বীকৃতি হিসেবে ১৯১৩ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পান তিনি। তিনিই উপমহাদেশের প্রথম নোবেল বিজেতা।
১৯৪১ সালে ৮০ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।
সুনামগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় কবিগুরুর জন্মদিন উদ্যাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী