1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ১২:১০ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

হাওর ও জলাভূমি সুরক্ষার জনহিতকর প্রকল্প : প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অচিরেই বাস্তবায়িত হোক

  • আপডেট সময় শনিবার, ৭ মে, ২০১৬

গতকাল দৈনিক সুনামকণ্ঠের একটি সংবাদ শিরোনাম ছিলÑ “হাওর-জলাভূমির সম্পদ কাজে লাগাতে হবে”। সংবাদবিবরণী থেকে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেনÑ “নদীমাতৃক বাংলদেশে হাওর ও জলাভূমি দেশের সম্পদ … দেশের মানুষের কাজে লাগাতে হবে।” সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পরিবেশগত পরিবর্তনের প্রতিক্রিয়ার অনিবার্য ফল প্রাকৃতিক দুর্যোগ অর্থাৎ শিলাবৃষ্টি, অকালে অতিবৃষ্টি, পাহাড়ি ঢল ইত্যাদি সুনামগঞ্জের জন্য মূর্তিমান বিপদ হয়ে আবির্ভূত হচ্ছে। আর সেই সঙ্গে আছে পাকিস্তান আমল থেকে নদীখনন বন্ধ হওয়ার কারণে নদীর নাব্যতা হ্রাসপ্রাপ্ত হয়ে বন্যার অবশ্যম্ভাবী প্রবল প্রাদুর্ভাব। এইসব কারণে প্রতিবছর ফসলহানির সম্মুখীন হয়ে এখানকার কৃষকরা হচ্ছে সর্বস্বান্ত। চৈত্র মাসের শেষের দিক থেকে আবির্ভূত এইসব প্রাকৃতিক দুর্যোগের কবলে পড়ে একমাত্র বোরো ফসল হারিয়ে এখানকার মানুষের বুক চাপড়ানো হাহাকার করা ছাড়া অন্য কোন উপায় থাকে না। এই যখন অবস্থা তখন জলাভূমিগুলোকে বাংলাদেশের লাইফলাইন হিসেবে উল্লেখ করে এগুলোকে সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছেন সংশ্লিষ্টদের। তিনি বলেছেনÑ “পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে হাওর-বাঁওর ও জলাভূমি সম্পদের রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবহারের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।” প্রধানমন্ত্রীর এইরূপ মন্তব্য বাংলাদেশের ভাটি অঞ্চলের, বিশেষ করে অবহেলিত ও দুর্গত সুনামগঞ্জের মানুষের বুকে আশার সঞ্চার করেছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অর্থাৎ ১৯৩৯ সালের আগে দেশে নিয়মিত নদী খননের কার্যক্রম পরিচালিত হতো। পাকিস্তানি আমলে এখানে নদীখনন বলতে গেলে সম্পূর্ণ বন্ধ রাখা হয়েছিল তো বটেই, তাছাড়া হাওরাঞ্চলে ফসলরক্ষা, বন্যাপ্রতিরোধ ইত্যাদির নামে এমন সব প্রকল্প কার্যকর করা হয়েছে, যেগুলো হাওরাঞ্চলের প্রাকৃতিক ভারসাম্যহীনতাকে উত্তরোত্তর ত্বরান্বিত করছে। এই সমস্যা নিরসনকল্পে স্বাধীনোত্তরকালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে হাওর উন্নয়ন বোর্ড গঠনের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালের রাজনীতিক পটপরিবর্তনের ফলে সেটি আর হয়ে ওঠেনি। বর্তমানে বঙ্গবন্ধুতনয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ হাওর ও জলাভূমি উন্নয়ন অধিদপ্তরের এক অনুষ্ঠানে জলাভূমি সুরক্ষা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন।
আমরা দেশের ভাটি-অঞ্চল ও বিশেষ করে সুনামগঞ্জের হাওরপাড়ের মানুষদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে তাঁর ‘জলাভূমি সুরক্ষা’র জনহিতকর প্রকল্প বাস্তবায়নের নির্দেশ দানের জন্য অভিনন্দন জানাই এবং সেই সঙ্গে আশা করি অচিরেই এই নির্দেশ বাস্তবায়িত হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com