শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন

Notice :

এবার দ্বিগুণ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী ও এমপিদের বেতন-ভাতা

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী এবং সংসদ সদস্যদের বেতন-ভাতা ও সুবিধাদি বাড়িয়ে পৃথক দুটি বিল পাস করা হয়েছে।
বৃহ¯পতিবার রাতে জাতীয় সংসদের দশম অধিবেশনের শেষ কার্যদিবসে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক ‘সংসদ সদস্যদের (বেতন-ভাতা ও সুবিধাদি) (সংশোধন) বিল-২০১৬’ উত্থাপন করেন। আর ‘মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রীদের (বেতন-ভাতা ও সুবিধাদি) (সংশোধন) বিল-২০১৬’ উত্থাপন করেন সংসদ কার্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। পরে সরকারি ও বিরোধীদলের এমপিদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ও সম্মতিক্রমে বিল তিনটি পাস হয়।
¯িপকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে বিলগুলোর ওপর জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব উত্থাপন করেন বিরোধীদলের সদস্যরা। তবে তাদের প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়। এর আগে গত ২ মে বিল তিনটি পাসের সুপারিশ করে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় স¤পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি সংসদে প্রতিবেদন জমা দেয়। গত ২৪ ও ২৫ জানুয়ারি বিল তিনটি সংসদে উত্থাপনের পর তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।
বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সংযুক্ত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত হওয়ায় এবং দেশের সামগ্রিক আর্থ-সামাজিক পরিপ্রেক্ষিত বিবেচনায় মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী এবং সংসদ সদস্যদের বেতন ও অন্যান্য সুবিধা সামঞ্জস্য রক্ষা করে পুণঃনির্ধারণের লক্ষ্যে বিদ্যমান আইনের অধিকতর সংশোধনের জন্য সংশ্লিষ্ট বিল উপস্থাপন করা হলো।
এদিকে এদিনই জাতীয় সংসদের ¯িপকার ও ডেপুটি ¯িপকারের বেতন-ভাতা বাড়িয়ে দ্বিগুণ করা হয়েছে। বর্ধিত বেতন-ভাতা ২০১৫ সালের জুলাই থেকে কার্যকর হবে। এর আগে বুধবার রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বেতন-ভাতা বাড়ানো সংক্রান্ত পৃথক দুটি বিল পাস হয়েছে জাতীয় সংসদে; যাতে তাদের বেতন-ভাতা প্রায় দ্বিগুণ করা হয়েছে। বুধবার সংসদ কাজে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী ‘দ্যা প্রেসিডেন্ট’স (রেমুনেরেশন অ্যান্ড প্রিভিলেজ) (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল-২০১৬, ‘দ্যা প্রাইম মিনিস্টার’স (রেমুনেরেশন অ্যান্ড প্রিভিলেজ) (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল- ২০১৬’ সংসদে পাসের প্রস্তাব করেন। পরে বিল দুটি কণ্ঠভোটে পাস হয়।
মন্ত্রিসভার সদস্যদের মধ্যে পূর্ণ মন্ত্রী ও সমপর্যায়ের উপদেষ্টাদের বেতন ৫৩ হাজার ১০০ টাকা থেকে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে। মন্ত্রীদের ব্যয় নিয়ামক ভাতা ৬ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করা হচ্ছে। মন্ত্রীরা বেসরকারি বাড়িতে বসবাস করলে বাসা ভাড়া পাবেন ৮০ হাজার টাকা। আগে এর পরিমাণ ছিল ৪৫ হাজার টাকা। তবে মন্ত্রীরা স্বেচ্ছায় বেসরকারি বাড়িতে বসবাস করলে এখন ২৫ হাজার টাকা ভাতা পান। এছাড়া মন্ত্রীদের প্লেন ভ্রমণে বিমার সীমা ৫ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৮ লাখ, দৈনিক ভাতা ৭৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২ হাজার টাকা এবং স্বেচ্ছাধীন তহবিলের আকার ৪ লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০ লাখ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।
প্রতিমন্ত্রী ও সমপর্যায়ের উপদেষ্টাদের বেতন ৪৭ হাজার ৮০০ থেকে বাড়িয়ে ৯২ হাজার টাকা করা হয়েছে। প্রতিমন্ত্রীদের ব্যয় নিয়ামক ভাতা ৪ হাজার থেকে বেড়ে সাড়ে সাত হাজার টাকা, বেসরকারি বাড়িতে বসবাসের ক্ষেত্রে ভাতা ৪০ হাজার থেকে ৭০ হাজার, প্লেন ভ্রমণে বিমার সীমা ৫ লাখ থেকে ৮ লাখ, দৈনিক ভাতা ৭৫০ টাকা থেকে দুই হাজার টাকা এবং স্বেচ্ছাধীন তহবিলের আকার ৩ লাখ বাড়িয়ে সাড়ে ৭ লাখ টাকা হচ্ছে।
উপমন্ত্রীর বেতন ৪৫ হাজার ১৫০ থেকে বাড়িয়ে ৮৬ হাজার ৫০০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এছাড়া উপমন্ত্রীদের ব্যয় নিয়ামক ভাতা ৩ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৫ হাজার টাকা, বেসরকারি বাড়িতে বসবাসের ভাতা ৪০ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৭০ হাজার টাকা, প্লেন ভ্রমণে বিমার সীমা ৫ লাখ থেকে বাড়িয়ে ৮ লাখ টাকা, দৈনিক ভাতা ৬০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে এক হাজার ৫০০ টাকা এবং স্বেচ্ছাধীন তহবিলের পরিমাণ ৩ লাখ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫ লাখ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে।
সংসদ সদস্যদের অফিস খরচ ৬ হাজার টাকা বাড়িয়ে ‘মেম্বর অব পার্লামেন্ট (রেমুন্যারেশন অ্যান্ড অ্যালাউন্সেস) (অ্যামেন্ডমেন্ট) অ্যাক্ট-২০১৬’ নামের একটি বিল পাস করা হয়। সংসদ সদস্যদের বেতন ২৭ হাজার ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫৫ হাজার টাকা, ব্যয় নিয়ামক ভাতা তিন হাজার টাকার পরিবর্তে পাঁচ হাজার টাকা, দৈনিক ভাতা ৩০০ টাকার স্থলে ৭৫০ টাকা, স্বেচ্ছাধীন তহবিল তিন লাখ থেকে বাড়িয়ে ৫ লাখ টাকা, নির্বাচনী এলাকার খরচ (মাসিক) ৭ হাজার ৫০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১২ হাজার ৫০০ টাকা, পরিবহন খরচ ভাতা (মাসিক) ৪০ হাজারের পরিবর্তে ৭০ হাজার টাকা, অভ্যন্তরীণ ভ্রমণ (বার্ষিক) খরচ ভাতা ৭৫ হাজার টাকা হতে বাড়িয়ে এক লাখ ২০ হাজার টাকা, লন্ড্রি ভাতা (মাসিক) এক হাজার থেকে বাড়িয়ে দেড় হাজার টাকা এবং ক্রোকারিজসহ অন্যান্য ভাতা চার হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ছয় হাজার টাকা করার করা হয়েছে।
বর্ধিত এই বেতন ভাতা ২০১৫ সালের জুলাই থেকে কার্যকর হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী