বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০৮:২৮ অপরাহ্ন

Notice :

লবিংয়ে ব্যস্ত আ.লীগ : মাঠেই আছে বিএনপি

জামালগঞ্জ প্রতিনিধি ::
জামালগঞ্জ উপজেলায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি’র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা মাঠে সরব থাকলেও আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের প্রার্থীরা কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে জোর লবিংয়ে ঢাকায় অবস্থান করছেন।
বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, জামালগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি নূরুল হক আফিন্দী ও সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মালিকের নেতৃত্বে বিএনপি তৃণমূলে নেতাকর্মীদের নিয়ে সভা করে দলীয় কাজ অনেকটা গুছিয়ে নিয়েছেন। বিএনপি’র প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহের পর ফরম জমা দিয়েছেন। এ পর্যন্ত বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীদের মাঝে যাঁরা দলীয় ফরম জমা দিয়েছেন তাঁরা হলেন- জামালগঞ্জ সদর ইউপিতে বিএনপি নেতা মো. শফিকুর রহমান, সাজ্জাদ মাহমুদ তালুকদার, জুয়েল আহম্মদ; সদর উত্তর ইউপিতে বিএনপি নেতা আলী আক্কাছ মুরাদ। সাচনাবাজার ইউপিতে বিএনপি নেতা মো. মাসুক মিয়া, ছাত্রদল নেতা গোলাম রব্বানী আফিন্দী, নজির আলী; ফেনারবাঁক ইউপিতে জুলফিকার চৌধুরী রানা, বিএনপি নেতা আজাদ হোসেন বাবলু; বেহেলী ইউপিতে বিএনপি নেতা নুর উদ্দীন, শামছুজ্জামান ধন মিয়া, মকসুদ আলী; ভীমখালি ইউপিতে অ্যাড. শাহীনুর রহমান শাহীন, আবু বক্কর সিদ্দিকী, আখতারুজ্জামান, আ. খালিক, দুলাল মিয়া, ফরিদ মিয়া ও মদরিছ আলী।
উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি নূরুল হক আফিন্দী বলেন, আমরা সব সময় জনগণের পাশেই ছিলাম, পাশেই আছি। যোগ্য প্রার্থীকে দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হবে। আমরা তাঁরা দলের আশাপূর্ণ করবেন। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জামালগঞ্জ উপজেলার সব ইউনিয়নে বিএনপি প্রার্থীরাই জয়ী হবেন।
অপরদিকে, উপজেলা আ.লীগের দুই গ্রুপের নেতারা নিজেদের পক্ষে দলীয় প্রার্থী বাগিয়ে আনতে শুরু করেছেন জোর লবিং। নিজ গ্রুপের প্রার্থীদের নিয়ে তাঁদের অনেকেই এখন ঢাকায় অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সুনামগঞ্জ জেলা আ.লীগের সম্মেলনের পরপরই জামালগঞ্জ উপজেলা আ.লীগে গ্রুপিং চাঙ্গা হয়ে ওঠে। দলীয় প্রতীক পেতে কেউ কাউকে তিল পরিমাণ ছাড় না দিয়ে উভয় গ্রুপ এখন ঢাকায় অবস্থান করছেন। জানা যায়, আ.লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে মূল কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ আলী গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে যাঁদের নামের তালিকা জমা দেয়া হয়েছে তাঁরা হলেন- সাচনাবাজার ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান জেলা আ.লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম শামীম, জামালগঞ্জ উত্তর ইউপিতে উপজেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদক হাজী এম.নবী হোসেন, সদর ইউপিতে জামিল আহম্মেদ, ফেনারবাঁক ইউনিয়নে মো. নুরু মিয়া, ভীমখালি ইউপিতে আ.লীগ নেতা আখতারুজ্জামান, বেহেলী ইউপিতে মিহির লাল তালুকদার।
অপর অংশের করুণাসিন্ধু গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে যাঁদের নামের তালিকা জমা দেয়া হয়েছে তাঁরা হলেন- জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নের উপজেলা আ.লীগ সহ-সভাপতি হাজী আব্দুল মুকিত চৌধুরী, জামালগঞ্জ উত্তর ইউনিয়ন পরিষদে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের ডেপুটি কমান্ডার ইউসুফ আল আজাদ ও উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোবারক আলী তালুকদার, ফেনারবাঁক ইউপিতে উপজেলা আ.লীগ সহ-সভাপতি (একাংশের) করুণা সিন্ধু তালুকদার, জেলা ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি জিতেন্দ্র তালুকদার পিন্টু ও উপজেলা যুবলীগের নেতা আব্দুল লতিফ নাজেল; ভীমখালি ইউনিয়নে উপজেলা পরিষদ সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও আ.লীগ নেতা মিছবাহ উদ্দিন; সাচনাবাজার ইউনিয়নে উপজেলা আ.লীগ নেতা সায়েম পাঠান ও উপজেলা যুবলীগ সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মকবুল হোসেন আফিন্দী; বেহেলী ইউপিতে আ.লীগ নেতা অসীম তালুকদার।
উপজেলা আ.লীগের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, দলীয় প্রার্থী নিয়ে মতবিরোধ থাকলেও আ.লীগের উভয় গ্রুপই শেষ পর্যন্ত সমঝোতার মাধ্যমে তাদের প্রার্থী নির্ধারণ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী