রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৫ পূর্বাহ্ন

Notice :

দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন: তাহিরপুরের ১৫হাওরে ১৫০ কোটি টাকার বোরো ফসলের ক্ষতি

স্টাফ রিপোর্টার ::
পাহাড়ি ঢলে বাঁধ ভেঙে, শিলাবৃষ্টি এবং জলাবদ্ধতায় তাহিরপুর উপজেলার ১৫ হাওরের বোরো ফসল তলিয়ে যাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের পুনর্বাসন, কৃষিঋণ মওকুফ, এনজিও ঋণ মওকুফ, সার্টিফিকেট মামলা প্রত্যাহারসহ উপজেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকেলে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুলের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ দাবি জানান স্থানীয় সরকারের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কামরুল বলেন, পাহাড়ি ঢলে ফসলরক্ষা বাঁধ ভেঙে তাহিরপুর উপজেলার শনির হাওর, ললিতপুর হাওর, ঘনিয়াকুড়ি হাওর, উলান হাওর, বলদার হাওর, কলমার হাওর, পানার হাওরসহ উপজেলার ১৫টি হাওরের ফসল সম্পূর্ণ তলিয়ে গেছে। এতে উপজেলার সকল কৃষকের শ্রমঘামে ফলানো সোনার ফসল ডুবে সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যায়। তলিয়ে যাওয়া ১৫ হাওরের ফসলের মূল্য প্রায় ১৫০ কোটি টাকা বলে তিনি জানান। লিখিত বক্তব্যে চেয়ারম্যান কামরুল আরও উল্লেখ করেন, সময় মতো হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধ নির্মাণ না করায় বাঁধ ভেঙে কৃষকের এ সর্বনাশ হয়েছে। এজন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড, ঠিকাদার এবং পিআইসি’র সংশ্লিষ্টদের শাস্তির দাবি জানিয়ে ফসলরক্ষায় স্থায়ী সমাধানের দাবি জানানো হয়।
লিখিত বক্তব্যে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের পক্ষে ৯ দফা দাবি জানানো হয়। দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে তাহিরপুর উপজেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা করে হাওরের ফসলহারা ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের পুনর্বাসন, কৃষকের কৃষিঋণ মওকুফ, বেসরকারি এনজিও সংস্থার ঋণ মওকুফ, সার্টিফিকেট মামলা প্রত্যাহার, বর্ষা মওসুমে হাওরের ভাসানপানিতে অবাধে মাছ ধরার সুযোগ প্রদান, বিনা সুদে কৃষিঋণ প্রদান, হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধ স্থায়ী নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণসহ হাওরাঞ্চলের নদ-নদী খননের দাবি জানানো হয়। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা পুনর্বাসন সহায়তা না পেলে তাদের পক্ষে আর কৃষি কাজ চালিয়ে যাওয়া কঠিন হবে বলে তিনি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফেরদৌস আলম আখঞ্জি, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহেদা আক্তার, উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মো. নূরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলী মর্তুজা, আওয়ামী লীগ নেতা অনুপম রায়, আওয়ামী লীগ নেতা রঞ্জু মুখার্জী, বিএনপি নেতা রুহুল আমীন, মেহেদি হাসান উজ্জ্বল, শাখাওয়াত হোসেন, কামাল পাশা, এমদাদুল হুদা, ইউপি চেয়ারম্যান মো. বুরহান উদ্দিন, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম মজনু প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী