1. dailysunamkantha@gmail.com : admin2017 :
  2. editor@sunamkantha.com : Sunam Kantha : Sunam Kantha
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৭:৫৭ অপরাহ্ন
ঘোষণা ::
সুনামগঞ্জ জেলার জনপ্রিয় সর্বাধিক পঠিত পত্রিকা সুনামকন্ঠে আপনাকে স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন - 01867-379991, 01716-288845

শিলাবৃষ্টিতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২২ এপ্রিল, ২০১৬

হোসাইন আহমদ ::
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় কালবৈশাখি ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া উপজেলার ডুংরিয়া, শিবপুর, আন্দাবাজ, নগর, হাসারচর, গণিগঞ্জ, বাবনিয়া, গণিগঞ্জ, হরিপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় অর্ধশতাধিক কাঁচা ঘর ও শতাধিক গাছপালা বিধ্বস্ত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এতে বোরো আবাদসহ অন্যান্য ফসলের ক্ষতি হওয়ায় কৃষক দুঃশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন। গত বুধবার রাত ১০টায় ঘণ্টাব্যাপি কালবৈশাখি ঝড়ের সাথে প্রচুর পরিমাণ শিলাবৃষ্টি হয়। কালবৈশাখি ঝড় ও শিলাবৃষ্টির ফলে উপজেলার সাংহাইর, দেখার হাওর, নাকডোরা, পশ্চিমের কিত্তাসহ ছোট-বড় ২৩টি হাওরের প্রায় কয়েক হাজার হেক্টর বোরো ফসলের ক্ষতি হয়েছে।
সরেজমিনে উপজেলার আন্দাবাজ, নগর, হাসারচর গ্রাম ঘুরে দেখা যায়, গ্রামের অধিকাংশ মানুষ হতদরিদ্র। অনেকের ঘরের টিনের চালা ছিদ্র ছিদ্র হয়ে গেছে। এছাড়া বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
আন্দাবাজ গ্রামের মোবারক আলী জানান, আমার ঘরের ভিতরে আধা কেজি ওজনের একেকটি শিলা পড়েছে। ছেলে সন্তানদের বাঁচানোর তাগিদে খাটের নিচে আশ্রয় নিয়েছিলাম।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় কৃষক পরিবারের সংখ্যা ২৬ হাজার ৯৩৫। উপজেলায় মোট কৃষি জমির পরিমাণ ২৪ হাজার ৬৩৫ হেক্টর। ২৩ হাজার ৩৩৫ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ হয়েছে। এতে ৮৪ হাজার ৯৭৭ মেট্রিক টন চাউল উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। চলতি বোরো মৌসুমে উপজেলায় হাইব্রিড জাতের আবাদ হয়েছে ১ হাজার ৮ শত ৬০ হেক্টর জমিতে, উফশী, ব্রি ২৮, ২৯ জাতের ধান আবাদ হয়েছে ১ হাজার ৯ শত ৮৭ হেক্টর জমিতে এবং স্থানীয় জাতের ৬শত ১০ হেক্টর। বিগত বছরে ২২ হাজার ২ শত ৩৫ হেক্টর জমিতে হাইব্রিড, উফসী ও স্থানীয় পর্যায়ে বোরো ধান আবাদ করা হয়েছে। চলতি বছর তা বেড়ে ২২ হাজার ২৫৫ হেক্টর জমিতে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে আরো ২০হেক্টর জমিতে বেশি চাষাবাদ হয়েছে। শিলাবৃষ্টির ফলে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
ডুংরিয়া গ্রামের কৃষক মাসুক মিয়া জানান, শিলাবৃষ্টিতে ধানি জমির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
দক্ষিণ সুনাগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার আব্দুল হালিম জানান, বৈশাখি ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে উপজেলার বিভিন্ন হাওরে বোরো ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। মাঠ কর্মকর্তারা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করছেন। পরবর্তীতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যাবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© All rights reserved © 2016-2021
Theme Developed By ThemesBazar.Com