বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

Notice :

ধনপুর ইউনিয়নে আবারও আ.লীগের মনোনয়ন চান হযরত আলী

স্টাফ রিপোর্টার ::
বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের আসন্ন নির্বাচনে আবারো আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে দুই বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. হযরত আলী কালাচাঁন।
অবসরপ্রাপ্ত সেই সেনা সদস্য বৃহত্তর সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ ইউপিচেয়ারম্যান হিসেবে সম্মাননা প্রাপ্ত। বর্তমানে ধনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন। তিনি ইউনিয়নের চিনাকান্দি গ্রামের বাসিন্দা।
রোববার ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ও হাট-বাজারে দিনব্যাপী গণসংযোগ ও ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় করেন মো. হযরত আলী কালাচাঁন। তিনি ইউনিয়নের ধনপুর বাজার, ইসলামপুর, মেরুয়াখলা, সুরেশনগর, চিনাকান্দি, কাইতকোণা, গামাইতলা, মাছিমপুর, শরীফগঞ্জ, আলাবাদী, ছাতারকোণা, তরইঙ্গা, চরগাঁও, কাঠাখালী, চান্দেরগাঁও, আসামপাড়া, দশঘর, বেতাঘড়া, দুধপুর, বোয়ালিয়া গ্রামে গণসংযোগ করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সাবেক কমান্ডার আফতাব উদ্দীন, বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ মানিক, ধনপুর বাজার কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম উকিল মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া, আব্দুল মান্নান, লাল মিয়া, হাছেন
আলী, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আব্দুল সাইদ, ব্যবসায়ী বাবুল রানা, আনোয়ার হেসেন, সোহরাব হোসেন, নুর হোসেন, বাদশা মিয়া, জসিম উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মতিন, ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজ প্রমুখ।
গণসংযোগকালে চেয়ারম্যান মো. হযরত আলী কালাচাঁন বিগত দিনে ইউনিয়নে নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে বলেন, বিগত ১০ বছর ধরে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে নিজেকে কোনো অনিয়ম-দুর্নীতির সাথে জড়িত করিনি। সততা এবং নিষ্ঠার সাথে জনগণের দেয়া দায়িত্ব পালন করেছি। ধনপুর ইউনিয়নবাসী আমাকে তাদের সন্তান মনে করেন, তাদের পরিবারের একজন সদস্য মনে করেন। আমি তাদের খেদমতে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছি। বিগত দিনে তারা যেভাবে আমাকে ভালোবেসেছেন, সহযোগিতা করেছেন, সমর্থন জানিয়েছেন আগামীতে এর ব্যতিক্রম হবেনা বলে আমি বিশ্বাস করি। আমি সব সময় মানুষের উপকার করার চেষ্টা করেছি। কখনো কারোর ক্ষতি করার কথা চিন্তাও করেনি। চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে এলাকার রাস্তাঘাট নির্মাণ-সংস্কার করেছি, কালভার্ট নির্মাণ করেছি। বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, পুষ্টি ভাতা, শিক্ষা ভাতা ইত্যাদি সুষমভাবে বিতরণ করেছি। কখনো স্বজনপ্রীতির আশ্রয় গ্রহণ করিনি।
আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মো. হযরত আলী কালাচাঁন বলেন, আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। উন্নয়নের রাজনীতি করি। আগামীতে ধনপুর ইউনিয়নে আরো উন্নয়ন হবে। ধনপুর ইউনিয়নবাসী আমার সাথে রয়েছেন, আ.লীগ নেতাকর্মীরা আমার সাথে রয়েছেন। আমার নির্বাচনী মাঠ গোছানো রয়েছে। আমি বিশ্বাস করি দল যদি আমাকে মূল্যায়ন করে, তাহলে আসন্ন নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধনপুর ইউনিয়ন থেকে নৌকার জয় উপহার দিতে পারবো। আমি সকলের দোয়া, সমর্থন এবং সহযোগিতা কামনা করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী