শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:২৬ অপরাহ্ন

Notice :

ফসলরক্ষা বাঁধের কাজ শুরু হয়নি : বাড়ছে উদ্বেগ

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জের হাওরের একমাত্র বোরো ফসলরক্ষা বাঁধের কাজ এখনো শুরু না হওয়ায় উদ্বেগ বাড়ছে। এদিকে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে অনিয়ম, দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার কারণে ফসলহানি হলে এর দায় উপজেলা পরিষদ নিবেনা বলে হুঁশিয়ারি করেছে সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশন। রোববার দুপুরে সাংবিধানিক অধিকার ফিরে পাবার দাবিতে সুনামগঞ্জে উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের ডাকা মতবিনিময় সভায় প্রাসঙ্গিক বক্তব্যে এসব কথা বলেন নেতৃবৃন্দ। মতবিনিময় সভায় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুনামগঞ্জে উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের সভাপতি ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল।
জানা গেছে, গত ১৫ ডিসেম্বর হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধের কাজ শুরু করে ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ করার কথা ছিল। পাল্লা দিয়ে প্রকল্প বাড়িয়ে হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধের কাজ শুরুর আগেই অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠেছে। বিভিন্ন স্থানে পিআইসিতে অকৃষক, মধ্যস্বত্তভোগীরা টাকা দিয়ে যুক্ত হচ্ছে। তাই কাজ শুরু করতে বিলম্ব হচ্ছে। মাঠ পর্যায়ে এমন অবস্থা প্রত্যক্ষ করে কৃষকদের কাছ থেকে নানা অভিযোগ পেয়ে এই উদ্বেগ প্রকাশ করেন সুনামগঞ্জে উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দ। তারা সরকারি বরাদ্দ যথাযথভাবে বণ্টন করে নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই প্রকৃত কৃষকের অংশগ্রহণে বাঁধ নির্মাণকাজ শেষ করার দাবি জানান। অন্যথায় অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে ফসলডুবির ঘটনা ঘটলে উপজেলা পরিষদ এর কোন দায় নিবে না বলে জানান। বরং স্থানীয় কৃষকদের নিয়ে দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে জড়িতদের বিরুদ্ধে মাঠে নামার ঘোষণা দেন তারা।
মতবিনিময় সভায় এ বিষয়ে প্রসঙ্গক্রমে বক্তব্য দেন সুনামগঞ্জে উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশন সভাপতি ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল। তিনি বলেন, আমরা বিভিন্নভাবে খবর পাচ্ছি হাওরের বাঁধের কাজ অনিয়ম ও দুর্নীতির কারণে বিলম্বিত হচ্ছে। এতে উৎকণ্ঠায় আছেন কৃষকরা। আমরা অনতিবিলম্বে কৃষকদের উদ্বেগ দূর করে সুষ্ঠুভাবে বাঁধের কাজ শুরু করে যথাসময়ে শেষ করার দাবি জানাই।
সভায় ১১টি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী