বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন

Notice :

মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে নাদের বখত

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে চান বর্তমান মেয়র নাদের বখতসহ আরও তিনজন। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পরই তারা নড়েচড়ে বসেছেন। কেউ কেউ তদবিরের জন্য ঢাকা ছুটে গেছেন। শেষ পর্যন্ত কে নৌকার টিকেট পাবেন তা নিয়ে চলছে নেতাকর্মীদের মধ্যে আলোচনা। তবে শেষ পর্যন্ত বর্তমান মেয়র নাদের বখতই নৌকা নিয়ে আসবেন এমন প্রত্যাশা অধিকাংশ নেতাকর্মীর। তাছাড়া মনোনয়ন চেয়ে নৌকা না পেলে মনোনয়ন প্রত্যাশী কোন প্রার্থীই বিদ্রোহী হবেন না বলে জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য, আগামী ১৬ জানুয়ারি সুনামগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। মনোনয়ন দাখিলের দিন ২০ ডিসেম্বর, ২২ ডিসেম্বর বাছাই এবং ২৯ ডিসেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন।
আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সুনামগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে আছেন বর্তমান মেয়র নাদের বখত। দীর্ঘদিন ধরে পৌরসভার নির্বাচনে ঐতিহ্যবাহী বখত পরিবারের প্রতিনিধিত্ব থাকায় তাদের নির্দিষ্ট ভোট ব্যাংক রয়েছে। বর্তমান মেয়র নাদের বখতসহ অতীতে এই পরিবারের তিনজন মেয়রের দায়িত্ব পালন করেছেন। এই পরিবারের সদস্য মেয়র আয়ূব বখত জগলুলের সময়েই পৌরসভার দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়। যে কারণে তিনি নাগরিকদের মনে স্মরণীয় হয়ে আছেন। এই পরিবারের সদস্য হিসেবে আয়ূব বখত জগলুলের মৃত্যুর পর তার ছোট ভাই নাদের বখত উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে বিজয়ী হন। সম্প্রতি বন্যায় বিধ্বস্ত সুনামগঞ্জ শহরের রাস্তাঘাট ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নে তিনি সংস্কার কাজ শুরু করে প্রশংসিত হচ্ছেন। আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কোন্দলের জের ধরে এই পরিবারেরই আরও কাউকে প্রার্থী করতে একটি মহল অপতৎপরতা শুরু করেছে বলে জানা গেছে।
আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র নাদের বখতের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চাইবেন সাবেক সংসদ সদস্য ও পৌর চেয়ারম্যান প্রয়াত দেওয়ান ওবায়দুর রেজা চৌধুরীর ছেলে জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শঙ্কর দাস এবং জেলা যুবলীগ নেতা ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নূরুল ইসলাম বজলু। এছাড়াও আরও কয়েকজন মনোনয়ন চাইতে পারেন বলে জানা গেছেন। তবে তারা এখনো মাঠে আওয়াজ দেননি।
শঙ্কর দাস প্রার্থী হিসেবে কিছুদিন আগে বিভিন্ন স্থানে প্রচারও চালিয়েছেন। দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরীর পক্ষে তার সমর্থক ও স্বজনরাও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার চালাচ্ছেন।
মনোনয়ন প্রত্যাশী নূরুল ইসলাম বজলু বলেন, আমি দলীয় মনোনয়ন চাইব। দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি নির্বাচন করব।
জেলা আওয়ামী লীগের শিল্পবিষয়ক সম্পাদক ও মেয়র পদে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী বলেন, দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা নিয়ে আমি মনোনয়ন চাইব। ইতোমধ্যে স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছে। তারা আমাকে কাজ করার কথা জানিয়েছেন।
বর্তমান মেয়র নাদের বখত বলেন, ইনশাল্লাহ অতীত ও বর্তমান মূল্যায়ন করে আমাকেই নৌকা প্রতীক দেয়া হবে। কারণ জননেত্রী শেখ হাসিনার আস্থাভাজন হিসেবে অতীত থেকেই আমাদের পরিবার রাজপথের নৌকার পক্ষেই আছে। তাছাড়া সাধারণ নেতাকর্মী ও নাগরিকরাও উন্নয়ন চলমান রাখতে মেয়র পদে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীই চান।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন বলেন, দলের মনোনয়ন বোর্ড অতীত মূল্যায়ন করে প্রকৃত আদর্শধারী নেতাকেই মনোনয়ন দিবে। যাকে মনোনয়ন দেওয়া হোক আমরা তার পক্ষে কাজ করব।
জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুট বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যাকেই নৌকা দিবেন আমরা তার পক্ষেই কাজ করব। নৌকার বিরুদ্ধে যারা যাবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী