শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন

Notice :

ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট : কম সময়ে বড় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি মেয়র নাদের বখত

মাসুম হেলাল ::
পৌর নির্বাচন যখন দুয়ারে কড়া নাড়ছে, ঠিক তার আগ মুহূর্তে টানা তিন দফা বন্যা আর ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের বেশিরভাগ সড়কে খানা-খন্দ সৃষ্টি হয়েছে। এতে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন পৌর নাগরিকরা।
প্রভূত উন্নয়নের মাধ্যমে পৌরবাসীকে দৃষ্টিনন্দন একটি পৌরসভা উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বর্তমান মেয়র নাদের বখত বিগত উপনির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। তাঁর অকাল প্রয়াত সহোদর আয়ূব বখত জগলুলের অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করার প্রতিশ্রুতিও ছিল পৌরবাসীর কাছে।
নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণে শুরু থেকেই তৎপর নাদের বখতের যাত্রাপথে প্রকৃতি যে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে সেটি কাটিয়ে ওঠে দৃষ্টিনন্দন পৌরসভা গড়তে তাঁর হাতে সময় আছে প্রায় তিন মাস। নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, ডিসেম্বরে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে।
নাদের বখত বলেছেন, নির্বাচনের আগেই একটি সুন্দর শহর পৌরবাসীর সম্মুখে উপস্থাপনের পরই মেয়র পদে প্রার্থী হবেন, অন্যথায় তিনি প্রার্থী হবেন না। পৌর নাগরিকদের কাছে এটা তাঁর ওয়াদা। এই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের লক্ষ্য নিয়ে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন।
পৌর নাগরিকরা বলছেন, বাকি সময়ের মধ্যে শহরের ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট মেরামতের চ্যালেঞ্জ উতরে গেলে আগামী নির্বাচনেও শক্তিশালী প্রার্থী হিসেবে আভির্ভূত হবেন বর্তমান মেয়র।
সুনামগঞ্জ পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মীর মোশাররফ হোসেন জানান, বর্তমানে পৌরসভার রাস্তাঘাট ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের লক্ষ্যে ৩৫ কোটি টাকার কাজ চলমান আছে। বড় ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ না আসলে অথবা বর্ষাকাল দীর্ঘায়িত না হলে আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে পৌরসভার ভাঙাচোরা সবগুলো রাস্তাঘাট সংস্কার করা সম্ভব হবে।
তিনি আরও বলেন, পৌরসভার প্রভূত উন্নয়নের জন্য আরো ২০ কোটি টাকার প্রকল্প প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। শীঘ্রই সেটা অনুমোদন হয়ে যাবে। এবং এই টাকার বিপরীতে উন্নয়ন কাজের দরপত্র আহ্বান করা হবে।
সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত বলেন, প্রয়াত পৌর মেয়র জগলুল সুনামগঞ্জ পৌর এলাকাকে দৃষ্টিনন্দন শহরে রূপান্তরের যে কাজ শুরু করেছিলেন, তাঁর অকাল মৃত্যুতে সেটা বাস্তবায়নের দায়িত্ব পৌরবাসী আমার উপর ন্যস্ত করেছেন। নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সেই লক্ষ্য পূরণে কাজ করে যাচ্ছি আমি। কিন্তু এবার পরপর তিন দফা বন্যা ও ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে শহরের অনেকগুলো রাস্তাঘাট ভেঙে যাওয়ায় নাগরিকেরা দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।
তিনি বলেন, নির্বাচনের আগেই গোটা শহরটাকে একটি সুন্দর শহরে রূপান্তর করব। এটা ‘কমিটিমেন্ট উইথ এভরি সিঙ্গেল পার্সন’। নির্বাচনের আগে রাস্তাঘাট সুন্দর করে দিতে পারলে নির্বাচনে আসব, না হয় আসব না।
মেয়র আরও বলেন, এখন শহরে ৩৫ কোটি টাকার উন্নয়নকাজ চলমান রয়েছে। ১০/১৫টি ছোট ছোট রাস্তার কাজ চলছে। নভেম্বরের ১৫ তারিখের মধ্যে সবগুলো রাস্তাঘাটের কাজ সম্পন্ন করার টার্গেট নিয়ে এগুচ্ছি আমরা।
স্থানীয় তহবিল থেকে আরও আড়াই কোটি টাকার উন্নয়নকাজের দরপত্র শীঘ্রই অহ্বান করা হবে বলে জানান মেয়র নাদের বখত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী