শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৪:৪২ অপরাহ্ন

Notice :

শিক্ষাব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের কথা চিন্তা করছে সরকার : পরিকল্পনামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ::
পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেছেন, শিক্ষাক্ষেত্রে আমাদের বিশাল চিন্তা-ভাবনা রয়েছে। শিক্ষাব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের কথা চিন্তা করছে সরকার। মানবিক বিষয়গুলোকে আমরা অবহেলা করিনা। কিন্তু পৃথিবী প্রযুক্তিনির্ভর, আমাদের সেদিকে যেতে হবে। তাই আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা কেরানি নির্ভর না করে বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্ভর করা হবে। সে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে সরকার।
শুক্রবার সকালে সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এর আগে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের নবনির্মিত প্রধান গেইট উদ্বোধন করেন। দৈনিক সুনামকণ্ঠ’র সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. জিয়াউল হকের সৌজন্যে গেইটটি নির্মাণ করা হয়েছে। তোরণ উদ্বোধনকালে সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন তালুকদার, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ নীলিমা চন্দ, উপাধ্যক্ষ মাজহারুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী নূরুল মোমেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জিয়াউল হকসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান আরো বলেন, আমরা দেখেছি কোনো কোনো কলেজে ২০ থেকে ২৫ হাজার শিক্ষার্থী থাকে, সেটি গ্রহণযোগ্য নয়। এখনো সিদ্ধান্ত না হলেও চিন্তা-ভাবনা রয়েছে কিভাবে এটি নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন প্রতিটি কলেজ শিক্ষার্থীর সংখ্যা নির্ধারণ করবে ৫ থেকে ৭ হাজার। প্রয়োজন হলে আরেকটি কলেজ নির্মাণ করা হবে।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে যে ব্যক্তি এতো কাজ করছেন তাকে আমাদের উৎসাহ দেওয়া প্রয়োজন, সহায়তা দেওয়া প্রয়োজন। আমি মনে করি এটা হবে উনার প্রতি কৃতজ্ঞতা। আমাদের বর্তমান প্রজন্মের যারা রয়েছ তোমাদের কাছে অনুরোধ- শক্তি, সময়, মেধা দিয়ে দেশ গঠনে প্রধানমন্ত্রীকে সহায়তা করবে।
মন্ত্রী এমএ মান্নান আরো বলেন, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের উন্নয়নের ব্যাপারে আমাকে বলা হয়েছে। এখানে একটি একাডেমিক ভবন তৈরি হচ্ছে। তাছাড়া গাড়ির কথাও বলা হয়েছে, এখানে এমপি মহোদয় রয়েছেন। আমিও সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের জন্য দুইটি বাসের ব্যবস্থা করে দেবো।
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে এমএ মান্নান বলেন, বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগাতে হবে। অনেকেই বাংলাদেশের বিকল্প খোঁজে। বাংলাদেশের কোনো বিকল্প নেই। এই অলীক চিন্তা করে লাভ নেই। আমাদের বিকল্প আমরাই। তাই দেশে থেকে দেশের জন্য কাজ করতে হবে।
পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশের শিক্ষাব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি করেছে। দেশের পিছিয়ে পড়া অঞ্চলে মেডিকেল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা হচ্ছে। দেশে এখন একশ’র ওপরে মেডিকেল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় আছে। অথচ একসময় এসব চিন্তার বাইরে ছিল। সুনামগঞ্জের হাওর এলাকাতেও মেডিকেল কলেজের কাজ শুরু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় হবে। রেললাইন আসবে। তাই দেশের মানুষকে উন্নয়নের পক্ষে থাকতে হবে। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের দৌড়ে রয়েছে। সম্পদ সীমিত হলেও দেশের এই উন্নয়নের ধারা থামবে না। আমরা উন্নয়নের দৌড়ে ছুটছি, মুক্তিযুদ্ধে যাওয়ার আগে অনেকেই ভেবেছিল আমরা পারব কি-না, আমরা পেরেছি। আমরা এগিয়ে যাচ্ছি আর থেমে থাকা যাবে না। কোন ভয় নেই, এই দেশ এগিয়ে যাবেই।
সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ নীলিমা চন্দের সভাপতিত্বে ও সহকারী অধ্যাপক জাকির হোসন এবং মৌলী মজুমদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসাবহ, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, কলেজের উপাধ্যক্ষ মাজহারুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী নূরুল মোমেন, অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন তালুকদার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জিয়াউল হক, অ্যাড. খলিল রহমান প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ও বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক ইফতেখার আলম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী