শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৫৪ অপরাহ্ন

Notice :

সিভিল সার্জনকে রহস্যজনক বদলি : প্রতিবাদে সোচ্চার জনতা

বিশেষ প্রতিনিধি ::
দুর্নীতিমুক্ত স্বাস্থ্যসেবা উপহার দেয়ার ঘোষণা দিয়ে দায়িত্ব নেওয়ার ২০ দিনের মাথায় রহস্যজনক কারণে বদলি হওয়া সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. তউহীদ আহমেদ কল্লোলের বিদায়ের খবর পেয়ে গাড়ির সম্মুখে মাটিতে বসে পথ আটকিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন মুক্তিযোদ্ধারা। বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে একাত্মতা পোষণ করে কর্মসূচিতে অংশ নেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রধান ফটকে প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপি এই অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়।
দুর্নীতিগ্রস্ত কোনো সিভিল সার্জনকে সুনামগঞ্জের স্বাস্থ্য বিভাগের দায়িত্ব দেওয়া হবে না এবং বদলিকৃত সিভিল সার্জন ডা. কল্লোলকে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলবেন- সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখতের এমন আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়।
মেয়র এই বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান ও সদর আসনের এমপি পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ’র সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ করবেন বলে আন্দোলনকারীদের আশ্বস্ত করেন।
অবস্থান গ্রহণকারীরা এ সময় বলেন, যুগ যুগ ধরে সুনামগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ ও সদর হাসপাতালের স্বাস্থ্যসেবা একটি চিহ্নিত দুর্নীতিবাজ চক্র কুক্ষিগত করে রেখেছিল। সম্প্রতি একজন সৎ সিভিল সার্জনকে সুনামগঞ্জে নিয়ে আসায় আশাবাদী হয়েছিলেন সাধারণ মানুষ। যোগদানের পর দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছিলেন নবাগত সিভিল সার্জন। দুর্নীতি বন্ধে কঠোর ঘোষণা দেয়ার ২০ দিনের মাথায় রহস্যজনক কারণে তাকে অন্যত্র বদলি করা হল, সেটা কার স্বার্থে। এই বদলির খবরে সুনামগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ বিস্মিত ও ক্ষুব্ধ। এতে কারা লাভবান হবে, সুনামগঞ্জবাসী সেটা জানে। আমরা মনে করি সৎ এই সিভিল সার্জনের বদলির পেছনে স্বাস্থ্য বিভাগে দীর্ঘদিন ধরে ঘাপটি মেরে বসে থাকা দুর্নীতিবাজ চক্রের হাত রয়েছে। এদের দৌরাত্ম্যে বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তারা।
তারা আরো বলেন, আমরা জানতে পেরেছি সিভিল সার্জনকে বদলি করাতে মাননীয় পরিকল্পনামন্ত্রীর পুরনো একটি আধা সরকারিপত্র (ডিও লেটার) ব্যবহার করা হয়েছে। মাননীয় মন্ত্রীকে তাঁর সততার জন্য দল-মত নির্বিশেষে সুনামগঞ্জের মানুষ শ্রদ্ধা করে। সকলেই তাঁর প্রতি আস্থাশীল। জনস্বার্থবিরোধী এই বদলির আদেশ স্থগিত করে সৎ সিভিল সার্জন ডা. তউহীদ আহমেদ কল্লোলকে সুনামগঞ্জের স্বাস্থ্যবিভাগের দায়িত্ব দিতে তিনি উদ্যোগী হবেন, এই প্রত্যাশা সুনামগঞ্জবাসীর।
অবস্থান কর্মসূচিতে অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মালেক হুসেন পীর, দৈনিক সুনামকণ্ঠ সম্পাদক বিজন সেন রায়, জেলা জাসদ সভাপতি এনামুজ্জামান চৌধুরী, হাওর বাঁচাও আন্দোলন নেতা রমেন্দ্র কুমার দে মিন্টু, সুনামগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক এমরানুল হক চৌধুরী, জাসদ নেতা সালেহিন চৌধুরী শুভ, সেবক-এর সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম মজনু, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ফারুক আহমদ সুজন, সাংবাদিক একে কুদরত পাশা, মাহমুদুর রহমান তারেক, শহীদনূর আহমেদ প্রমুখ।
অবস্থান কর্মসূচি প্রত্যাহারের পর সন্ধ্যায় এক আবেগঘন পরিবেশে সুনামগঞ্জ থেকে বিদায় নেন বাবার টিউশনির টাকার খরচে ডাক্তার হওয়া সৎ সিভিল সার্জন ডা. তউহীদ আহমদ কল্লোল।
এ সময় তিনি বলেন, আমি সরকারি চাকরি করি, উপর থেকে বদলির যে আদেশ এসেছে সেটা মানতে বাধ্য। তবে আপনারা আমার প্রতি যে ভালবাসা দেখিয়েছেন সেই ভালবাসার কথা আমি আজীবন মনে রাখব। দোয়া করবেন, এখানে যে ভাল কাজগুলো আমি করতে চেয়েছিলাম, সেটা যেন পরবর্তী কর্মস্থলে গিয়ে করতে পারি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী