শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:২০ অপরাহ্ন

Notice :

এখনো ১০০ প্রকল্পে কাজই শুরু হয়নি

স্টাফ রিপোর্টার ::
জেলার বিভিন্ন হাওরের ১০০টি ফসলরক্ষা বাঁধে এখনো কাজ শুরু করতে পারেনি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি (পিআইসি)। জেলায় এ পর্যন্ত অনুমোদিত ৭২৫টি প্রকল্পের মধ্যে ৬২৫টি প্রকল্পে কাজ শুরুর কথা জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। তবে কৃষকদের মতে এখনো প্রায় তিন শতাধিক প্রকল্পে কাজ শুরু করা যায়নি।
জেলা কাবিটা মনিটরিং ও বাস্তবায়ন কমিটি সূত্রে জানা গেছে, জেলায় বৃহস্পতিবার পর্যন্ত হাওরের ফসল রক্ষায় ৭২৫টি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এতো এতো প্রকল্প নিয়ে নানা অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রয়োজন নেই এমন প্রকল্প নেওয়ার পাশাপাশি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এমন প্রকল্পেও সমান বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া প্রকল্প প্রয়োজন এমন কয়েকটি স্থানে প্রকল্পই নেওয়া হয়নি। এ নিয়ে কৃষক ও কৃষক নেতাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
পাউবো জানিয়েছে, বাঁধ সংস্কার ও মেরামতের কাজ পিছিয়ে থাকলেও ক্লোজারগুলোতে আগে কাজ শুরু হয়েছে। তাদের মতে ক্লোজারের ৯০ ভাগ কাজ শেষ হয়ে গেছে। তবে কৃষকরা জানিয়েছেন ক্লোজারে অর্ধেকেরও বেশি কাজ এখনো বাকি আছে। এভাবে সাধারণ প্রকল্পগুলোতেও কাজ শুরু করা যায়নি। দিরাই, শাল্লা, তাহিরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশা, জগন্নাথপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় ফসলরক্ষা বাঁধের কাজে বিলম্ব লক্ষ করা গেছে।
কৃষক নেতা অমর চাঁদ দাস বলেন, হাওরের কাজে গাফিলতি রয়েছে। এখনো সব প্রকল্পে কাজ শুরু করা যায়নি। আবার অনেক অপ্রয়োজনীয় প্রকল্প নেওয়া হলেও প্রয়োজনীয় দু’একটি প্রকল্প কারণ ছাড়াই বাদ দেওয়া হয়েছে। আমাদের এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানেই এমন ঘটনা ঘটেছে। তিনি বলেন, এখন হাওরের বাঁধের কাজ ৬০-৭০ ভাগের বেশি শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখনো কাজ শুরুই করা যায়নি। সময় মতো কাজ না হলে বাঁধ টেকসই হয় না। যার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।
ধর্মপাশা উপজেলার সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমানুর রাজা চৌধুরী বলেন, আমরা হাওরের কৃষকরা উদ্বিগ্ন। বাঁধের কাজ নিয়ে কৃষকরা সন্তুষ্ট নন। তারা জানিয়েছেন বিতর্কিত অনেক লোক পিআইসিতে যুক্ত থেকে নানা অনিয়ম করছে। তিনি বলেন, আমাদের স্পষ্ট কথা- বাঁধের কাজ যথাসময়ে ও যথা নিয়মে শেষ করতে হবে।
পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সবিবুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত জেলায় ৭২৫টি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। আরো কিছু বাড়তে পারে। গতকাল পর্যন্ত ৬২৫টি প্রকল্পে কাজ শুরু হয়েছে। সব বাঁধে সমানুপাতিক হারে কাজ না হলেও ক্লোজারের ৯০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। অন্য প্রকল্পগুলোতেও কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী