সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন

Notice :

তাহিরপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ : অগঠনতান্ত্রিক উপায়ে কমিটি গঠনের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার ::
অগঠনতান্ত্রিক উপায়ে তাহিরপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই কমিটি ‘অবাঞ্চিত ঘোষণা’ করে প্রতিবাদ সভা করেছেন উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ড নেতৃবৃন্দ।
শনিবার দুপুরে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলী।
মুক্তিযোদ্ধা সন্তান হোসাইন শরীফ বিপ্লবের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জালাল উদ্দিন, শাহানুর মিয়া, আবদুল গণি, মশ্রব আলী, আব্দুর রউফ, হারুনুর রশীদ, আবদুল মজিদ, করম আলী, রাব্বানী মিয়া, কুদরত আলী, শামসু মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান খেলু মিয়া, সামায়ুন কবির, এমদাদ নুর, গুলশান মিয়া, আশরাফুল আলম, শাহান শাহ, ফয়েজ মিয়া, ফরমুজ আলী, এনামুল হক, মালু মিয়া, মঞ্জুর আলী, মো. নূরুল ইসলাম, আবদুল আওয়াল, লিমন মিয়া, সফর উদ্দিন, খসরু ওয়াহিদ চৌধুরী, সামায়ুন মিয়া, সুজাত মিয়া, উজ্জ্বল মিয়া, মতি মিয়া, ফখর উদ্দিন, ফেরদৌস আলম, রাজা মিয়া, বিল্লাল মিয়া, জামাল মিয়া প্রমুখ।
প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, ১০ অক্টোবর দুপুরে উপজেলা পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের বিভিন্ন হিসাব-নিকাশ নিয়ে একটি সভা ডাকা হয়। প্রায় ২৩ জন মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে অনুষ্ঠিত সভায় সুকৌশলে একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেন রফিকুল ইসলাম। এ সময় সভার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গণি সভায় প্রশ্ন তুলেন মিটিং ডাকা হয়েছে হিসাব-নিকাশের জন্য কোন কমিটি গঠনের জন্য নয়। কমিটি গঠন করতে হলে তাহিরপুর উপজেলায় ৩১৯ জন মুক্তিযোদ্ধা রয়েছে তাদের সবাইকে নিয়ে মিটিং করে সর্বসম্মতিক্রমে কমিটি গঠন করতে হবে।
বক্তারা আরো বলেন, শুক্রবার একটি জাতীয় দৈনিকে মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলামকে তাহিরপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আহ্বায়ক করে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, মনগড়া ও বানোয়াট।
এ কমিটির কোন বৈধতা নেই উল্লেখ করে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক কমান্ডার মো. আবদুল গণি বলেন, কমিটি গঠন করতে হলে উপজেলার সকল মুক্তিযোদ্ধা নিয়ে সভা ডেকে গঠনতান্ত্রিকভাবে কমিটি গঠন করতে হবে। এরকম মনগড়াভাবে গঠিত কমিটি আমরা অবাঞ্চিত ও প্রত্যাখ্যান করলাম।
বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাহিদ উদ্দিন বলেন, আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে যা প্রচার হচ্ছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট।
বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক কমান্ডার রৌজ আলী বলেন, ব্যাংক ভাড়া ও হিসাব-নিকাশের কথা বলে মিটিং ডেকে কমিটি গঠন এটি সম্পূর্ণ পরিকল্পিত। যা আমরা মুক্তিযোদ্ধারা মানি না।
মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন বলেন, আমরা কিছু জানি না হিসাব নিকাশ নিকাশ নেওয়ার জন্য মিটিং করেছি। রফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। হিসাব জানতে চেয়েছি কিন্তু তিনি সঠিক হিসাব দিতে পারেন নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী