শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

Notice :

আ.লীগ প্রার্থী খায়রুল হুদা চপলকে হিন্দু ধর্মীয় ২৫ সংগঠনের সমর্থন

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী খায়রুল হুদা চপলকে আনুষ্ঠানিক সমর্থন জানিয়েছে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার হিন্দু ধর্মীয় ২৫টি সংগঠন। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুটের আমন্ত্রণে বুধবার রাতে জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এ উপলক্ষে বিশেষ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় সনাতন ধর্মীয় প্রায় তিন শতাধিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
শ্রীশ্রী জগন্নাথ জিউর মন্দির পরিচালনা কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রবীণ শিক্ষাবিদ ধূর্জটি কুমার বসুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক বিজয় তালুকদার বিজু’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিশেষ এই মতবিনিময় সভায় ২৫টি ধর্মীয় সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের নেতৃবৃন্দ খায়রুল হুদা চপলকে অকুণ্ঠ সমর্থন জানান। আগামী ১০ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করার জন্য নেতৃবৃন্দ সকলকে আহ্বান জানান। সভায় প্রধান আকর্ষণ ছিলেন সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ।
মতবিনিময় সভায় সনাতন ধর্মের নেতৃবৃন্দ বলেন, খায়রুল হুদা চপল একজন অসাম্প্রদায়িক ব্যক্তিত্ব। পারিবারিকভাবেই তিনি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের স্বজন হিসেবে পাশে আছেন। জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুট কর্তৃক সনাতন ধর্মের বিভিন্ন সংগঠনে সার্বিক সহযোগিতা ও প্রতিষ্ঠানে অনুদানের কথা উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ বলেন, সাম্প্রদায়িক ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষা করে নূরুল হুদা মুকুট ও তার পরিবার মানুষের মনে স্থায়ী আসন করে নিয়েছেন। বক্তারা খায়রুল হুদা চপলকে বিনয়ী, ন¤্র, ভদ্র ও উচ্চশিক্ষিত ব্যক্তিত্ব উল্লেখ করে বলেন, তিনি সুনামগঞ্জের সম্প্রীতির রাজনীতির একজন অন্যতম কা-ারি। এমন একজন সুযোগ্য প্রার্থীকে সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। বক্তারা খায়রুল হুদা চপলকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করার অঙ্গীকার করেন।
বক্তারা আরো বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে শেখ হাসিনা ও তার মনোনীত প্রার্থীর প্রতি আমাদের আস্থা রাখতে হবে। সেজন্য নৌকা ছাড়া আমাদের অন্য কোন বিকল্প নেই। আগামী ১০ মার্চ খায়রুল হুদা চপলকে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান নেতৃবৃন্দ।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- রামকৃষ্ণ আশ্রম পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক যোগেশ্বর দাশ, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি নৃপেশ তালুকদার নানু, সুনামগঞ্জ সংস্কৃত কলেজের অধ্যক্ষ গৌরাঙ্গ চক্রবর্তী, শ্রীশ্রী কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি নাট মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি অ্যাড. স্বপন দাস রায়, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি অ্যাড. মলয় চক্রবর্তী রাজু, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ মাইনোরিটি ওয়াচ-এর সাধারণ সম্পাদক কাজল চন্দ্র দে, নতুনপাড়া শ্রীশ্রী ঠাকুরবাণীর থলা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ পাল নিতাই, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাড. বিমান কান্তি রায়, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিমল বণিক, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাড. প্রণব তালুকদার নীলু, লোকনাথ সেবা সংঘের সভাপতি মতিলাল চন্দ, শ্রীশ্রী দুর্গাবাড়ি মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুবিমল চক্রবর্তী চন্দন, সৎসঙ্গ বিহার সুনামগঞ্জ-এর সাধারণ সম্পাদক অসিত রঞ্জন দাস, ব্রাহ্মণ পুরোহিত কল্যাণ সমাজ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সদস্য সচিব বিপুল ভট্টাচার্য্য, শ্রীশ্রী দুর্গাবাড়ি পরিচালনা কমিটির সদস্য ও জেলা আ.লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক অভিজিৎ চৌধুরী বিজিত, শ্রীশ্রী কালীবাড়ি নাট মন্দির পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি নান্টু রায়, শ্রীশ্রী অদ্বৈত প্রভু মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাননবন্ধু রায়, জেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর দাস, তাহিরপুর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক অমল কর, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দীপঙ্কর কান্তি দে, কাঠিয়া বাবা সেবা সংঘের সাধারণ সম্পাদক ঝন্টু দাস, সাংবাদিক কুলেন্দু শেখর তালুকদার, অঞ্জন পাল, চপল তালুকদার।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- শ্রীশ্রী জগন্নাথ জিউর মন্দির পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি সুভাষ রায়, লোকনাথ সেবা সংঘ সুনামগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক শংকর বণিক, শ্রীশ্রী তারকব্রহ্ম হরিনাম সংকীর্তন উদযাপন কমিটির সভাপতি সন্তোষ রায়, জেলা জন্মষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাড. গৌরাঙ্গপদ দাস, শ্রীশ্রী তারকব্রহ্ম হরিনাম সংকীর্তন উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত বণিক, ফ্রেন্ডস ক্লাব পূজা কমিটির উপদেষ্টা ও শ্রীশ্রী জগন্নাথ জিউর মন্দির পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি জগদীশ বণিক, স্বামী বিবেকানন্দ শিক্ষা ও সংস্কৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক লিটন রায়, শ্রীশ্রী মহাপ্রভুর মন্দির পরিচালক কৃষ্ণগোপাল গোস্বামী, বিশ্বরূপ গোস্বামী জন্মতিথি উদযাপন কমিটির সভাপতি করুণাময় দে, নারায়ণ চক্রবর্তী, কৃষ্ণ অনুরাগী জাগ্রত যুবক সংঘ অদ্বৈত ধাম-এর সভাপতি প্রান্ত রায়, ষোলঘর কীর্তন কমিটির নিতাই চন্দ ও বকুল তালুকদার, সুনামগঞ্জ স্বর্ণ শিল্প কারিগর সমিতির সভাপতি ব্রজলাল বণিক, সাধারণ সম্পাদক কালু কর্মকার, শ্রীশ্রী অদ্বৈত প্রভু মন্দির পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি অনিমেষ পাল ভানু, যতীন্দ্র বণিক, সুখেন্দু সেন (হারু), ভোলানাথ রায়, গোবিন্দ পাল, মাখন লাল শর্মা, চিত্তরঞ্জন দাস, অরুণ দে, রবীন্দ্র দে, সনৎ কুমার দাস, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক চন্দন রায়, বাবুল চৌধুরী, প্রভাত রঞ্জন শর্মা, সমর রায়, প্রদীপ দাস, সরোজ চক্রবর্তী, বিভাস দে, মৃদুল চৌধুরী, জেলা যুবলীগ নেতা সবুজ দাস, অ্যাড. অনুপ ধর, অ্যাড. দেবাংশু তালুকদার, জগন্নাথ রায়, শিক্ষক সুজিত দাস, নেপাল দাস, রন্টু দাস, বলরাম বণিক, হরিপদ বণিক, মনুলাল বর্মণ, বিজন রায়, নবনী দাস, বিষ্ণু দেব, বিকাশ দত্ত, করুণা তালুকদার, বাবুল পুরকায়স্থ, গৌরাঙ্গ দে, চিত্তরঞ্জন বণিক, জীতেশ বণিক, করুণা তালুকদার (গৌরারং), পার্থ সারথী চক্রবর্তী, হিরন্ময় রায়, কৃষ্ণ রায়, সুপ্রিয় রায় বাচ্চু, লিপন দাস, বিজয় নন্দী, সুজিত দে, সুমন রায়, কার্তিক রায়, রনি দাস, পিন্টু বণিক, জয়ন্ত বণিক সুমন, গৌরা বণিক, সজল দাস, নিখিল দাস, চন্দ্রনাথ রায়, চন্দ্রা রায়, বিদ্যুৎ দে, ধীরেন্দ্র বণিক, সমীর দে, মানিক বণিক, কৃষ্ণ সূত্রধর, যতীন্দ্র মোহন তালুকদার, আশীষ রায়, মহিতোষ সরকার, অরবিন্দু তালুকদার, টিংকু চৌধুরী, টিটু তালুকদার, সম্ভু রায়, বাদল পাল, মরণ বণিক, বকুল তালুকদার, সুমন সরকার, রাজন দাস প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী