,

Notice :
«» আলোকিত মানুষ ছাড়া একটি রাষ্ট্রের উন্নয়ন সম্ভব নয় : নাহিদ আফরোজ সুলতানা «» নারী এমপিরা সংসদে যোগ দিচ্ছেন আজ «» জেলা আইনজীবী সমিতি – জেলা ক্রীড়া সংস্থার প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ «» শুদ্ধসুরে জাতীয় সঙ্গীত প্রতিযোগিতায় সেরা সরকারি কলেজ, এসসি গার্লস ও দিরাই মডেল প্রাইমারি স্কুল «» সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর দাবিতে ছাত্র ইউনিয়নের প্রচারণা «» স্মার্টফোনের বদলে সন্তানের হাতে বই দিন : তথ্যমন্ত্রী «» কর্মসংস্থান বাড়ানোতে গুরুত্ব দিন «» হাওরের মাটি কাটা হচ্ছে কলমে! «» উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ «» সরেজমিন খরচার হাওরের ফসলরক্ষা বাঁধ : অপ্রয়োজনীয় প্রকল্পে সিকিভাগ কাজ হয়নি

শহরবাসীর বিশ্বাস আমাকে অনুপ্রাণিত করছে : নাদের বখ্ত।

রেজাউল করিম::
সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত বলেছেন, আমার পরিবার বার বার সম্মানিত হচ্ছে। পৌরবাসীর সেবা করার সুযোগ আমার পরিবার বার বার পাচ্ছে। তাই আমার পরিবার পৌরবাসীর কাছে ঋণি। এ ঋণ শোধ করতে সুনামগঞ্জ পৌর এলাকার উন্নয়ন করতে আমি বদ্ধপরিকর। পৌর নাগরিকদের ভালবাসার ঋণ শোধ করতে আমার ভাই প্রয়াত আয়ুব বখত জগলুল চেয়েছিলেন কিন্তু বিধিবাম তার আগেই তিনি এই পৃথিবী ছেড়ে চিরবিদায় নিয়ে গেছেন। সুতরাং আমার ভাইয়ের অসমাপ্ত কাজগুলো আমি পৌরবাসীর সহযোগিতা নিয়ে সম্পন্ন করতে চাই। তিনি বৃহস্পতিবার সকালে শহরের কাজী পয়েন্টস্থ বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারী কল্যাণ সমিতির কার্যালয়ে তাঁকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি সংবর্ধিত ব্যক্তির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
পৌর মেয়র নাদের বখত আরো বলেন, এই পৌরশহরকে উন্নয়ন করতে বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নিয়ে কাজ শুরু করার প্রক্রিয়া গ্রহন করা হয়েছে। টেন্ডার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আমার ভাই আয়ুব বখত জগলুল মৃত্যুবরণ করার পর উন্নয়ন কাজে কিছুটা স্থবিরতা চলে এসেছিল। সেগুলো কাটিয়ে উঠে নাগরিক সুযোগ সুবিধার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শহরবাসী তথা অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী কল্যাণ সমিতির বিশ্বাস আমাকে অনুপ্রাণিত করছে। আমি কাজে আন্তরিক হয়েছি। সুনামগঞ্জের কৃতি সন্তানরা ঢাকায় অবস্থান নিয়ে আমাকে নানা কাজে সহযোগিতা করছেন। শহরবাসীর নজরে শহরের সৌন্দর্য বিন্যাসের চিত্র ধরা পড়লে আমি অবশ্যই জানবো এবং শোধরানোর চেষ্টা চালাবো। আজ আমি আপনাদের ভালবাসায় সিক্ত। সুখে দু:খে আমি আপনাদের কাছে আছি এবং থাকব। সমিতির উন্নয়নে যা যা করার প্রয়োজন আমি করে যাবো। আমাদের পরিবারের লোকজন যেভাবে আপনাদের পাশে থেকে কাজ করেছেন আমিও ঠিক সেভাবে আপনাদের পাশে থেকে কাজ করে যেতে চাই। এ জন্য আমি সকর্লে সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করছি।
সংবর্ধনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি ডা. সৈয়দ মোনাওয়ার আলী। সাধারণ সম্পাদক খুরশীদ আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাবেক অধ্যক্ষ দিলীপ কুমার মজুমদার। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক অধ্যক্ষ পরিমল কান্তি দে, সাবেক সিভিল সার্জন ডা. আব্দুন নুর, ডা. বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম, সাবেক অধ্যক্ষ ন্যাথানায়েল এডউইন ফেয়ারক্রস, সাবেক ব্যাংকার গোলাম কিবরিয়া, মো. মোর্শেদ আলম প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রয়াত আয়ুব বখত ও সমিতির অন্যান্য সদস্যবৃন্দের মৃত্যুতে বিশেষ মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। মুনাজাত পরিচালনা করেন সমিতির সদস্য মো, আব্দুর রউফ। এর আগে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সাধারণ সম্পাদক খুরশীদ আহমদ এবং গীতা পাঠ করেন অনুকুল চন্দ্র মৈত্র।
সবশেষে সংবর্ধিত পৌর মেয়র নাদের বখতকে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। এসময় সমিতির অন্যান্য পুরুষ-মহিলা সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী