,

Notice :
«» ধর্মপাশায় বিদ্যুৎ সাব-স্টেশন নির্মাণকাজ দ্রুততার সাথে এগিয়ে যাচ্ছে «» ৩০ তারিখ সারাদিন নৌকা মার্কায় ভোট দিন : এমএ মান্নান «» মহাজোটের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করুন : রনজিত চৌধুরী «» বিশ্বম্ভরপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের শতাধিক নেতাকর্মীরা স্বেচ্ছাসেবক লীগে যোগদান «» নৌকায় ভোট দিলে দেশে উন্নয়ন হয় : জয়া সেনগুপ্তা «» ছাতকে দুই জামায়াত নেতা গ্রেপ্তার «» ইতিহাসের তথ্যবিকৃতি কাম্য নয় «» মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখার দৃপ্ত শপথে বিজয় দিবস উদযাপিত «» জুবিলী ও সতীশ চন্দ্র স্কুলের কোচিংবাজ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের চিঠি «» সুনামগঞ্জ-৪ আসনকে উন্নয়নে বদলে দেবো : পীর মিসবাহ

নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে : জয়া সেনগুপ্তা

শাল্লা প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জ-২ আসনের আ.লীগের দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত ড. জয়া সেনগুপ্তা বলেছেন, নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। একটা কথা কিন্তু পরিষ্কার, শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনে জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আবারো ক্ষমতায় বসবেন। এজন্য আমাদের প্রতিটি কর্মী ভোটারদের কাছে গিয়ে সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে নৌকায় ভোট দেয়ার জন্য তাদের উৎসাহিত করতে হবে। শুধু সেন্টার কমিটি গঠন করলেই হবে না। বিচ্ছিন্নভাবে কাজ করলেও চলবে না। আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের অনেকের মনে দুঃখ কষ্ট থাকতে পারে। তবে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সকল দুঃখ কষ্ট ভুলে একসাথে কাজ করতে হবে।
বৃহস্পতিবার শাল্লায় আ.লীগের দলীয় কার্যালয়ে দুপুরে এক কর্মী সভায় তৃণমূল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় আ.লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অলিউল হক, সাধারণ সম্পাদক আল আমিন চৌধুরী, দিরাই উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায়সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এসময় আল আমিন চৌধুরী বলেন, ভোট আসলেই সাম্পদায়িকতার বিষ ছড়িয়ে দেয় একটি মহল। আমাদেরকে সাম্প্রদায়িকতার উর্ধ্বে থেকে কাজ করতে হবে। পাশাপাশি সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য তৃণমূল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানান তিনি। পরে শাল্লা উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের তৃণমূল নেতাকর্মীদের সাথে পৃথক পৃথকভাবে আলোচনা করেন ড. জয়া সেনগুপ্তা।
খেলাধুলার পাশাপাশি দেশ গড়ায় সবাইকে কাজ করতে হবে : এম এ মান্নান
হোসাইন আহম ::
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী আলহাজ¦ এম এ মান্নান বলেছেন, বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ দুর্বার গতিতে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশে এতো উন্নয়ন হয়েছে যে আপনার চারপাশে যা কিছুই দেখছেন অধিকাংশ বর্তমান সরকারের উন্নয়ন। আওয়ামী লীগ সরকার উন্নয়নের রোড মডেল। এ সরকার যথবারই ক্ষমতায় এসেছে ততবারই উন্নয়ন হয়েছে।
তিনি বলেন, স্বাধীনতার পরে কোন সরকারই এতো উন্নয়ন করতে পারে নাই। শুধু করেছে আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ মানেই উন্নয়ন। খেলাধুলার উন্নয়নে সরকার বদ্ধপরিকর। সরকার খেলাধুলার উন্নয়নে খুবই আন্তরিক। এজন্য খেলাধুলার স্বার্থে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়েছে। পাশপাশি বিভিন্ন বিদ্যালয়ে খেলাধুলার জন্য মাঠ সংস্কারের জন্য ইতিপূর্বে বিশেষ বিশেষ বরাদ্দ দিয়েছে সরকার।
মন্ত্রী আরো বলেন, এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে পশ্চিম পাগলা ইউনিয়নের একমাত্র খেলার মাঠটি খুব শীঘ্রই সংস্কারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পাশপাশি মাঠ সংলগ্ন মন্দিরের গার্ড ওয়ালও নির্মাণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাই খেলাধুলার পাশাপাশি সবাইকে দেশ গড়ার কাজেও এগিয়ে আসতে হবে। ইতিপূর্বে পশ্চিম পাগলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। আগামীতেও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে।
বৃহস্পতিবার বিকেলে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পাগলা ইউনিয়নের পশ্চিম পাগলা শাপলা স্পোর্টিং ক্লাবের উদ্যোগে ফাইনাল খেলার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
পশ্চিম পাগলা শাপলা স্পোর্টিং ক্লাবের সভাপতি মো. কয়ছর আহমদের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক আশীষ চক্রবর্তী ও জাবেদ নুরের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী আবুল কালাম, পশ্চিম পাগলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুরুল হক।
এসময় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. ফারুক আহমদ, জেলা যুবদলের আহবায়ক মো. আনছার উদ্দিন, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়াম্যান সিতাংশু শেখর ধর সিতু, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. আতাউর রহমান, সহ দপ্তর সম্পাদক সুরঞ্জিত চৌধুরী টপ্পা,উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা তেরাব আলী, উপজেলা যুবলীগ সদস্য মো. সেলিম রেজা, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল তাহিদ, উপজেলা পুরস্কার দাতা বীরেন্দ্র কুমার দাস,মফিজুর রহমান, মুজিবুর রহমান, সাজিদুর রহমান সাজিদ প্রমুখ। খেলাটি পরিচালনা করেন শাহীন আহমদ।
উক্ত খেলায় পুরো সময় কোন গোল না হওয়ায় সমঝোতায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে দুরন্ত স্পোটির্ং ক্লাব, হাজীপাড়া পাগলা, দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে দুর্বার ক্রীড়াচক্র,পশ্চিম পাগলা, ও তৃতীয় স্থান লাভ করে কেএসপি স্পোটির্ং ক্লাব,কান্দিগাঁও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী