,

Notice :

ঢাকা শহরে বসবাসকারী নেতারা বড় বড় কথা বলেন: এমপি পীর মিছবাহ


স্টাফ রিপোর্টার::

সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেছেন, আমাদের এলাকার কিছু মানুষ আছে তারা সংসদ সদস্য হওয়া পর অনেক বড় বড় কথা বলেন। তারা নিজেদেরকে অনেক বড় মাপের নেতা মনে করেন। তারা ঢাকা শহরে থাকেন। ঢাকা শহরে তাদের প্রসাদ রয়েছে। তারা সুনামগঞ্জে দুই এক দিনের জন্য রাজনীতি করতে আসেন। এসে তারা অনেক বড় বড় কথা বলেন যে, তারা উন্নয়নের জোয়ারে সুনামগঞ্জকে ভাসিয়ে দিয়েছেন। আসলে তারা নিজেও জানেন না যে এখন মানুষ সবই বুঝে। যে কি রকম উন্নয়ন আপনারা করেছেন এবং কোনটা মিথ্যা বলছেন কোনটা সত্যি বলছেন।
তিনি আরো বলেন, শহরের আশপাশের গ্রামগুলোর দিকে থাকলেই সবগুলোর বেহাল অবস্থা দেখি। কোথাও উন্নয়নের ছোঁয়া আমি দেখতে পাইনা। কিন্তু লম্বা লম্বা বক্তৃতা শুনি নেতাদের। তারা এমপি থাকতে গ্রাম বাংলার সব উন্নয়নমূলক কাজ করে ফেলেছেন বলে বক্তৃতা ঝারেন।
এমপি পীর মিছবাহ তার সময়ের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরেন। তিনি বলেন, রাজার গাঁও, চানপুর, রাস্তায় ৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দিয়ে আমি মাটি ভরাট করেছি। এই অচিন্তপুর গ্রামে দুটি রাস্তায় দুইবারে ৪ লক্ষ টাকায় আমি মাটি ভরাট করে দিয়েছি। তিনি আরো বলেন, প্রায় ৯৬ লক্ষ টাকার ব্যয়ে আপনাদের রাস্তায় কাজের শুভ সূচনা করলাম আজ। তিনি বলেন, আমার সময়ে সবচেয়ে বেশি সড়ক নির্মাণ হয়েছে সদর-বিশ্বম্ভরপুরে। যত স্কুল, মাদ্রাসা, একাডেমিক ভবন নির্মাণ হয়েছে তার আগে এত গুলো ভবন নির্মাণ হয়নি বলে জানান তিনি।
সোমবার বিকেলে অচিন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্যের বরাদ্দ থেকে বরাদ্ধ হতে ৯৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে অচিন্তপুর-বৈঠাখালী গ্রামের রাস্তা পাকা করণ কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন ও রাধানগর গ্রামের ইটসলিং রাস্তার উদ্বোধন শেষে গৌরারং ২নং ওয়ার্ড বাসীর আয়োজনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও গৌরারং ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক মো এরশাদের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ আলী খুশনুর, সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আব্দুর রশিদ, জেলা যুব সংহতির যুগ্ম আহবায়ক মনির উদ্দিন মনির, সদর উপজেলা এলজিইডি প্রকোশলী আনোয়ার হোসেন, গৌরারং ইউনিয়ন জাথীয় পার্টির আহবায়ক শওকত আলী, এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, রাজারগাও গ্রামের বাসিন্দা আব্বাস উদ্দিন, কতুবপুর গ্রামের বাসিন্দা বশির মিয়া প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী