,

Notice :

ধর্মপাশায় শিশু ধর্ষণের শিকার, যুবক গ্রেফতার


ধর্মপাশা প্রতিনিধি ::

ধর্মপাশায় ১১ বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে উপজেলার বংশীকু-া দক্ষিণ ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের আক্কল আলী (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে গত শনিবার রাত চারটার দিকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেছে মধ্যনগর থানা পুলিশ।
মধ্যনগর থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ওই শিশুটি উপজেলার সরকারি একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। তাদের পরিবারটি খুবই দরিদ্র। দীর্ঘদিন ধরে তার বাবা অসুস্থ হয়ে বসত ঘরে শয্যাশায়ী। মা অন্যের বাড়িতে কাজ করেন।
উপজেলার বংশীকু-া দক্ষিণ ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের বাসিন্দা দুই সন্তানের জনক আক্কল আলী নিজ গ্রামে একটি মালিকানাধীন পুকুর ইজারা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সেখানে মাছ চাষ করে আসছেন। ওই পুুকুর পাড়ে রাত্রিযাপনের জন্য টিনের দোচালা একটি ঘর রয়েছে। চলতি বছরের ১৮জুন সন্ধ্যা সাতটার দিকে ওই পুকুর পাড়ে থাকা টিনের ঘরের ভেতরের জানালা দিয়ে ওই শিশুটিকে ডাক দেয় আক্কল আলী। তার জন্য ওই শিশুটিকে খাবার পানি নিয়ে আসতে বলে। পানি নিয়ে পুকুর পাড়ে থাকা ওই ঘরে শিশুটি ঢোকা মাত্রই ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয় আক্কল আলী। এক পর্যায়ে শিশুটির মুখে গামছা চেপে ধরে ও ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক তাকে সে ধর্ষণ করে। পরে শিশুটি ভয়ে ও লজ্জায় কাউকে কিছু না জানিয়ে নিজ বাড়িতে চলে যায়। গত ২৬ জুন সকাল ১১টার দিকে ওই শিশুটি নিজ বাড়ি থেকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় তাকে ঘরে একা পেয়ে ভয় ভীতি দেখিয়ে তাদের রান্না ঘরে নিয়ে গিয়ে ওই শিশুটিকে দ্বিতীয়বারের মতো ধর্ষণ করে দুই সন্তানের জনক আক্কল আলী। মাস দুয়েক পর ওই শিশুটির বমি বমি ভাব ও শরীরের বেশ কিছু পরিবর্তন দেখে শিশুটির মায়ের সন্দেহ হয়। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে ওই শিশুটির সঙ্গে আক্কল আলী কর্তৃক ধর্ষিতা হওয়ার বিষয়টি তার মায়ের কাছে সে প্রকাশ করে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর ওই শিশুটির মা শিশুটিকে নিয়ে পাশের উপজেলার একটি ক্লিনিকে গিয়ে ডাক্তার দেখান। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে শিশুটি অন্তঃস্বত্বা হয়েছে বলে জানতে পারেন তার মা। এ নিয়ে গত শনিবার বিকেলে ওই শিশুটির চাচা বাদী হয়ে আক্কল আলীকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মধ্যনগর থানায় একটি মামলা করেন। ওইদিন রাত চারটার দিকে আক্কল আলীকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে মধ্যনগর থানা পুলিশ।
মধ্যনগর থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দীপংকর সরকার বলেন, ওই শিশুটি ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা রয়েছে। তবে এ নিয়ে আরও অধিকতর তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। আসামি আক্কল আলীকে রোববার দুপুরে ধর্মপাশা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে সুনামগঞ্জ জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ওই শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষা-নিরীক্ষাসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় কার্যাদির বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী