বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন

Notice :

যুক্তফ্রন্ট-জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার ৫ দফা ঘোষণা

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ৫ দফা দাবি ও ৯টি লক্ষ্য ঘোষণা করলো যুক্তফ্রন্ট ও জাতীয় ঐক্য-প্রক্রিয়া। শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব দফা ও লক্ষ্য পাঠ করেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।
প্রথম দফায় বলা হয়েছে, আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ (লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড) নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নির্বাচনি তফসিল ঘোষণার আগে বর্তমান সংসদ ভেঙে দিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার গঠন করতে হবে। নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না।
দ্বিতীয়ত, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাকস্বাধীনতা, ব্যক্তি, সংবাদপত্র, টেলিভিশন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও সব রাজনৈতিক দলের সভা-সমাবেশের স্বাধীনতা নিশচিত করতে হবে। আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে।
তৃতীয়ত, কোটা সংস্কার ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের নেতৃত্বদানকারী ছাত্র-ছাত্রীসহ সব রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারসহ গ্রেফতারকৃতদের মুক্তি দিতে হবে। এখন থেকে নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোনও রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা যাবে না।
চতুর্থ দফায় বলা হয়েছে, নির্বাচনের একমাস আগে থেকে নির্বাচনের পর ১০ দিন পর্যন্ত মোট ৪০ দিন প্রতিটি নির্বাচনি এলাকায় ম্যাজিস্ট্রেট ক্ষমতাসহ সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। একইসঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত ও নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনের ওপর ন্যস্ত করতে হবে।
পঞ্চম দফায় উল্লেখ করা হয়েছে, নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের চিন্তা ও পরিকল্পনা বাদ দিতে হবে, ‘গণ প্রতিনিধিত্ব আদেশ-১৯৭২’এর যুগোপযোগী সংশোধনের মাধ্যমে গণমুখী করতে হবে। পাশাপাশি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে।
সংবাদ সম্মেলনের আগে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শহীদ মিনারের দিকে রওনা হন জোট নেতারা। তবে প্রেসক্লাব থেকে রওয়ানা হলেও একটু সামনে যেতেই তাদের আটকে দেওয়া হয়।
এ সময় জোটের আরেক নেতা আসম আব্দুর রব অভিযোগ করেন, তাদের শহীদ মিনারে যেতে দেওয়া হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অনুমতি দেয়নি।
তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর একেএম গোলাম রব্বানী জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে এ মুহূর্তে ভর্তি পরীক্ষা চলছে। তাই বাইরের কাউকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে কোনও কর্মসূচি না করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। কাউকে নিষেধ করা হয়নি।
অন্যদিকে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এ ব্যাপারে জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের সঙ্গে এ ব্যাপারে তাদের কথা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিপরীক্ষা চলায় শিক্ষা কার্যক্রমের বাইরে কোনও কর্মসূচি না করার জন্য তাদের অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী