,

Notice :

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রতিরোধের আহ্বান বিএনপির

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিরুদ্ধে সকলকে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছে বিএনপি। শনিবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, “সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের মতকে উপেক্ষা করে বহুল আলোচিত ডিজিটাল নিরাপত্তা বিলের ওপর প্রতিবেদন তৈরি করেছে সংসদীয় কমিটি। এটা একটি ভয়ংকর কালাকানুন। রাষ্ট্র ক্ষমতাকে আওয়ামী তন্ত্রের কাছে মৌরসীপাট্টা করার জন্যই এই আইন পাস করা হচ্ছে। এটি পাস করা হলে গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের স্বাধীনতা হুমকির মুখে পড়বে। আমি দৃঢ় কণ্ঠে বলতে চাই, এই কালো আইন পাস করা যাবে না। দলমত নির্বিশেষে সকল মানুষকে এই কালো আইনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আমি জোর আহ্বান জানাচ্ছি।”
খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের না রেখে সরকার তার অসুস্থতাকে ‘হিংসা চরিতার্থ করার লক্ষ্যবস্তুতে’ পরিণত করেছে বলে অভিযোগ করেন রিজভী।
তিনি বলেন, “আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় এমন চিকিৎসকদের দিয়ে বোর্ড গঠন করা হয়েছে। অর্থাৎ ক্ষমতাসীনদের অনুগত চিকিৎসকরা বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে প্রথম শেখ হাসিনাকে রিপোর্ট করবে, তারপরে তার যা বলে দিবেন সেই অনুযায়ী চিকিৎসা চলবে। আমরা বলতে চাই, দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের বাদ দিয়ে ক্ষমতাসীন দলের চিকিৎসকদের দিয়ে বোর্ড গঠন দুরভিসন্ধিমূলক। গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তির চিকিৎসা নিয়ে এটি এক চরম তামাশা।
মেডিকেল বোর্ড গঠনে সরকারের সিদ্ধান্তকে ‘বিপজ্জনক’ অভিহিতি করে তিনি বলেন, “যদি হিংসাশ্রয়ী মনের সাধ মেটানোর চক্রান্ত করে দেশনেত্রীর ক্ষতি করা হয় তাহলে সরকারের পরিণাম হবে ভয়াবহ।”
নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভুঁইয়া, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, শাহ আবু জাফর ও হেলেন জেরিন খান উপস্থিত ছিলেন।
পরে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের উদ্যোগে কারাবন্দি খালেদা জিয়ার ওপর নির্মিত গানের সিডির উদ্বোধন করেন রিজভী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী