,

Notice :
«» সোমবার শহীদ সিরাজ লেকে ‘ইত্যাদি’র দৃশ্যায়ন «» জামালগঞ্জের দৌলতা ব্রীজ মরণ ফাঁদ «» রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন অ্যাড. রুমেন «» আয়কর মেলা সমাপ্ত : ৪ দিনে কর আদায় সাড়ে ১২ লক্ষ টাকা «» ‘নীলাদ্রি’ নয় শহীদ সিরাজ লেক নামে ‘ইত্যাদি’ অনুষ্ঠানে প্রচারের জন্য স্মারকলিপি «» নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন : সহকারি রির্টানিং অফিসারের কাছে অভিযোগ «» মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিসংরক্ষণ কর্মকে প্রবল ও বেগবান করুন «» কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীরা «» নির্বাচনী মাঠ ফাঁকা : প্রার্থীরা ঢাকায়, উৎকণ্ঠা উত্তেজনায় কাটছে প্রতি মুহূর্ত «» প্রশাসনের উদ্যোগ : প্রার্থীদের নির্বাচনী ব্যানার পোস্টার অপসারণ

সাব ডিলারের মাধ্যমে সরকারি চাল বিতরণে নানা প্রশ্ন


মো. শাহজাহান মিয়া ::

জগন্নাথপুরে সাব ডিলারের মাধ্যমে সরকারি চাল বিতরণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের হলিকোনা বাজারে। এ নিয়ে এলাকায় নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, গত ১০ সেপ্টেম্বর থেকে জগন্নাথপুর উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে ডিলারদের মাধ্যমে ১০ টাকা কেজি দরে সরকারি চাল বিতরণ শুরু হয়েছে। এর মধ্যে চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের শাহ আলম নামের এক ডিলারের মনোনীত সাব ডিলার আবদুল মজিদ হলিকোনা বাজারে সরকারি চাল বিক্রি করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।
মঙ্গলবার সরজমিনে দেখা যায়, ডিলারের দোকানের সামনে কোনো প্রকার ব্যানার নেই। দোকানে কোনো ক্রেতা পাওয়া যায়নি। সাংবাদিকের উপস্থিতি দেখে সাব ডিলার আবদুল মজিদ একজনকে ডেকে এনে চাল বিতরণ করেন। এ সময় ডিলার শাহ আলম আসেন। তখন জানতে চাইলে ডিলারের ম্যানেজার বলেন, তাদের অধীনে মোট ৫২৭ জন কার্ডধারীর বিপরীতে ১৫ টন চাল উত্তোলন করেন। এর মধ্যে ২ দিনে ২৩৬ জনের মধ্যে চাল বিতরণ করা হয়েছে। বাকি চাল স্টকে আছে।
তবে ডিলার শাহ আলম বলেন, আমি বিগত বিএনপি সরকারের আমলে ডিলারশীপ হয়ে ছিলাম। তিনি অকপটে স্বীকার করে বলেন, আমি একটি ফার্মে চাকরি করি। যে কারণে আবদুল মজিদ ডিলারের ব্যবসা পরিচালনা করেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জগন্নাথপুর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ধীরাজ নন্দী চৌধুরী বলেন, বিষয়টি তদন্তক্রমে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী