,

Notice :
«» সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রদীপ সিংহ কে বিদায়ী সংবর্ধনা «» বিদ্যুৎ ও জ্বালানিখাতে অবদানে পুরস্কার বিতরণ «» রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় খালেদা জিয়াকে জেলে আটকে রাখা হয়েছে –কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন «» পাকনা হাওরের : স্কিম গ্রহণ সংক্রান্ত জন-অংশগ্রহণমূলক মতবিনিময় «» জামালগঞ্জে নাশকতার মামলায় ৪ জন গ্রেফতার «» প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ালেন জাহাঙ্গীর আলম «» পরিত্যক্ত গুদামঘরটি অপসারণ করুন «» বিএনপির রাজনীতি : আন্দোলনের ফাঁকে নির্বাচনী প্রচারণা «» ভিডিও কনফারেন্সে তাহিরপুরের শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী «» গ্রেনেড হামলার রায় প্রত্যাহারে বিএনপির কালো পতাকা মিছিল

সুনামগঞ্জে রেল চালু করবো : প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান

হোসাইন আহমদ ::
সুনামগঞ্জে রেল চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি। তিনি বলেছেন, সুনামগঞ্জের সীমান্ত হয়ে তাহিরপুর-ধর্মপাশা হয়ে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত রেল লাইন চালু করবো।
তিনি আরো বলেন, সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কের কাজ শুরু হয়েছিল। কিন্তু একটি মহল মামলা করে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। মামলাটি খারিজ হয়েছে। অল্পদিনের মধ্যেই সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়কে কাজ শুরু হবে। জগন্নাথপুরের আশারকান্দি রোড নিয়ে একটু সমস্যায় আছি। ঠিকাদার কাজ করে নাই। ডিপার্টমেন্ট তার কাজ বাতিল করেছিল। কিন্তু ঠিকাদার উচ্চ আদালতে মামলা করায় আমরা আটকে গেছি। তবে আমরা থেমে থাকবো না। আবার জগন্নাথপুর-আশারকান্দি রাস্তার কাজ শুরু করবো। শেখ হাসিনা পুনরায় প্রধানমন্ত্রী হলে সুনামগঞ্জে হবে বিশ্ববিদ্যালয়। আগামী নির্বাচনের পরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজ শুরু করবো।
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি বুধবার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে ইফতার ও দোয়া মাহফিল পূর্ব আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় রাশিয়া, ভারতসহ অনেক দেশ আমাদের পাশে ছিল। বিশ্বের অনেক দেশই আমাদের বন্ধু। রাশিয়া, চীন, ভারত আমাদের বন্ধু। এদেশে আণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা স্বপ্নের ব্যাপার ছিল। কিন্তু রাশিয়া বাংলাদেশের পাবনায় আণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরিতে সহযোগিতা করেছে, আমাদের স্বপ্নপূরণ হয়েছে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি শান্তিপ্রিয় দেশ। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শান্তিপূর্ণভাবে এদেশের উন্নয়নযজ্ঞ পরিচালিত হচ্ছে। আগামীতেও আরও উন্নয়ন হবে। দেশের প্রতিটি গ্রাম-গঞ্জের ছেলে-মেয়েদেরকে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত করার লক্ষ্যে শেখ হাসিনা টেক্সটাইল কলেজ, মেডিকেল কলেজসহ আধুনিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জেলা পর্যায়ে নির্মাণ করছেন। এটা শুধু শেখ হাসিনার দ্বারাই সম্ভব। জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার সব সময় গরিব, অসহায়, মেহনতি মানুষের পাশে থাকেন।
প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ শেখ হাসিনার জন্য একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। বিশ্বের অনেক দেশের স্যাটেলাইট নেই। আজ আওয়ামী লীগ সরকারের মাধ্যমে দেশ মধ্যম আয়ের দেশে হিসেবে স্বীকৃতিও পেয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কাজের কোন শেষ নাই। আগামী নির্বাচনে দেশের উন্নয়নে চাই নৌকা। শেখ হাসিনা নৌকা নিয়ে আপনাদের দরজায় হাজির হবেন। শেখ হাসিনার নৌকাকে যদি বিজয়ী না করতে পারি, তাহলে আমাদের উপর আবারও দুর্ভোগ নেবে আসবে।
প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান আরো বলেন, আমি আপনাদের মানুষ। বিগত ৯ বছর আমাকে একটানা আপনাদের পাশে দেখেছেন। সুনামগঞ্জ জেলার অনেক উন্নয়নে আমাকে দেখেছেন। আমি হাওরের সন্তান, কৃষকের সন্তান, দিনমজুরের সন্তান। আমার জন্ম এখানেই। আমার পরিচায় সাধারণ মানুষ হিসাবে। আমি অতীতে আপনাদের পাশ ছেড়ে যাই নাই। আগামীতেও যাব না। আমি আপনাদের কাছে ঋণী। হাওরের মানুষ আমার আপনজন। আমি মন্ত্রী কেন, আরও অনেক বড় পদ পেলেও আপনাদের ছেড়ে যাব না। আমি আপনাদের সেবা করার জন্য রাজনীতি করি। আমার রাজনীতি করার উদ্দেশ্যেই হলো হাওরাঞ্চলের উন্নয়ন।
সভায় দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী তহুর আলীর সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক মো. আতাউর রহমান ও জেলা কৃষকলীগ সদস্য মো. মাসুক মিয়ার পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি শফিকুল আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান সিরাজ, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আকমল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু।
অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড রইছ উদ্দিন, অ্যাড বশির উদ্দিন, সুনামগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাশ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. আতাউর রহমান, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য মো. জহিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য ফারহানা ইয়াসমিন সীমা, শিমুলবাক ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জিতু, জয়কলস ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মাসুদ মিয়া, পূর্ব পাগলা ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন, পশ্চিম পাগলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. নুরুল হক, পূর্ব বীরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান নুর কালাম, পশ্চিম বীরগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, দরগাপাশা ইউপি চেয়ারম্যান মো. মনির উদ্দিন, পূর্ব পাগলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মো. রফিক খাঁন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বাছিত সুজন, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ সভাপতি অ্যাড. বোরহান উদ্দিন দোলন, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুজন, সহ-সভাপতি জুবেল আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম শিপন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী