,

Notice :
«» শাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে প্রথম হয়েছে শাহিলা চৌধুরী «» জগন্নাথপুরে প্রবাসীর উদ্যোগে রাস্তায় মাটি ভরাট «» স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রয়াত সভাপতি রমা দাসের জন্মদিন পালন «» সামাজিক সম্প্রীতি বিষয়ক কর্মশালা «» হাওর বাঁচাও সুনামগঞ্জ বাঁচাও আন্দোলনের বাদাঘাট দক্ষিণ ইউনিয়ন কমিটি গঠন «» ধর্মপাশায় পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন করেন রনজিত সরকার «» কাজ-না-করা সরকারি প্রতিষ্ঠান দেশের উন্নতিকে পিছনে টানে «» পণ্য প্রদর্শনী মেলায় নিম্নমানের পণ্যের দাম অধিক «» তাহিরপুর-মধ্যনগরে ব্যারিস্টার ইমনের মতবিনিময়: নির্বাচনী এলাকায় নতুন আলোচনা «» শিক্ষক সংকটে দক্ষিণ সুনাগঞ্জের অধিকাংশ বিদ্যালয় ভারপ্রাপ্ত দিয়ে চলছে শিক্ষা কার্যক্রম

জাপা এমপিদের হুঁশিয়ার করলেন অর্থমন্ত্রী

সুনামকণ্ঠ ডেস্ক ::
জাতীয় পার্টির (জাপা) সংসদ সদস্যদের (এমপি) ওপর বেজায় চটেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। তাকে জাপার আমলের মন্ত্রী বলায় এবং সেসময়কার বাজেট প্রদানের বিষয়টি ‘স্মরণ করিয়ে দেওয়ায়’ এমন ক্ষোভ মুহিতের। ভবিষ্যতে জাপা এমপিরা এ ধরনের কথা বললে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেন মন্ত্রী।
সোমবার (১১ জুন) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে স¤পূরক বাজেটের ওপর সমাপনী বক্তৃতা করছিলেন অর্থমন্ত্রী। এর আগে স¤পূরক বাজেটের ওপর আলোচনাকালে মুহিতকে জাপা আমলের অর্থমন্ত্রী বলে উল্লেখ করেন দলের এমপি সেলিম উদ্দিন।
স¤পূরক বাজেট স¤পর্কে অর্থমন্ত্রী মুহিত বলেন, গতবার স¤পূরক বাজেট নিয়ে যেসব আলোচনা হয়েছিল তাতে আমার ইচ্ছে ছিল স¤পূরক বাজেটটাকে আরেটু অর্থবহ করা এবং সেটা বিশদভাবে আলোচনার ব্যবস্থা করা। এটা এ বছর আমি করতে পারিনি সেজন্য খুবই দুঃখিত। আশা করছি ভবিষ্যতে এ ধরনের একটা ব্যবস্থা হবে। স¤পূরক বাজেটে আমরা যে পরিবর্তন করেছি সেটা খুবই সামান্য। মোটামুটিভাবে আগে বিভিন্ন বিভাগে যে ক্ষমতা এই সংসদ দিয়েছিল সেটা যতদূর সম্ভব রক্ষা করেছি। তবে কিছুটা আয়-ব্যয় এদিক-সেদিক হয়েছে। সেটিকে জায়েজ করার জন্য স¤পূরক বাজেট।
এরপর জাপার সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে মুহিত বলেন, আমার একটু বলা উচিত। কয়েকবারই বলেছি, কিন্তু জাতীয় পার্টির সদস্যরা সেটা অস্বীকার করে যান। আজকেই অস্বীকার করেছেন, এখনই মিস্টার সেলিম সেটা বলেছেন। আমি কোনো দিন জাতীয় পার্টির সদস্যও ছিলাম না, কোনো দিন জাতীয় পার্টির মন্ত্রীও ছিলাম না, অনেকবার এটা বলেছি। জেনারেল এরশাদ যখন সামরিক শাসক ছিলেন সেই সময় মন্ত্রী ছিলাম, জাতীয় পার্টির তখন জন্মও হয়নি, সেই সময়টিতে ছিলাম। জাতীয় পার্টির জন্ম হওয়ার আগে আমি সেই সরকার থেকে পদত্যাগ করে চলে যাই। কাজেই আমার অনুরোধ হবে ভবিষ্যতে যেন জাতীয় পার্টির সদস্যরা মনে রাখেন, যদি না রাখেন তবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করবো।
এরপর জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, এরশাদ সাহেব যখন সামরিক সরকার গঠন করেন, তখন তার অর্থমন্ত্রী হিসেবে, সামরিক সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসেবে এই সংসদে বাজেট দিয়েছেন। তিনি কখনো জাতীয় পার্টি করেননি। তবে আমি আশ্বস্ত করতে চাই, ভবিষ্যতে আপনার মতো ‘এতো জ্ঞানী, অভিজ্ঞ ব্যক্তি’কে জাতীয় পার্টি তাদের দলে স্থান দেবে না। এজন্য আপনাকে আদালতে যেতে হবে না। কিন্তু আপনি ব্যাংক ডাকাতদের যে ‘প্রটেকশন’ দিয়েছেন তার জন্য আদালতে যেতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী