বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১১:০২ পূর্বাহ্ন

Notice :

ধানকাটার দুই শ্রমিককে বেধড়ক মারধর

ধর্মপাশা প্রতিনিধি ::
ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মাইজবাড়ি গ্রামের সামনের মাঠে বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় দুইজন ধান কাটার মৌসুমী শ্রমিককে বেধড়ক মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই ইউনিয়নের মাইজবাড়ি গ্রামের কৃষক দুদু মিয়া (৪৫)-এর নেতৃত্বে এ মারধরের ঘটনা ঘটেছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। আহত দুজন শ্রমিককে ওইদিন দুপুরে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ওই দুজনের মধ্যে হাবিল মিয়ার (২৮) এর অবস্থার আশঙ্কাজনক হওয়ায় ওইদিনই তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।
এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের জালধরা হাওরে প্রতি কিয়ার বোরো জমির ধান দুই হাজার পাঁচশত টাকা করে কর্তন করে দেওয়ার শর্তে মাইজবাড়ি গ্রামের কৃষক মো. দুদু মিয়া স্থানীয় ১৬জন শ্রমিককে নিয়োজিত করেন। গত বুধবার ও বৃহস্পতিবার সকালে তারা জালধরা হাওরে ওই কৃষকের সাড়ে চার কিয়ার জমি ধান কর্তন করে দেন। কিন্তু দুদু মিয়া সাড়ে চার কিয়ার জমির মজুরি পরিশোধ না করে তিনি মাত্র তিন কিয়ার জমির মজুরি পরিশোধ করতে চান। এ নিয়ে ওইদিন সকাল দশটার দিকে মাইজবাড়ি গ্রামের সামনের মাঠে ধান কাটার শ্রমিক সর্দার হাবিল মিয়ার (২৮) সঙ্গে দুদু মিয়ার কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে দুদু মিয়া ও তাঁর লোকজন ধাইর‌্যা (খড় নাড়াচাড়া করার যন্ত্র) এবং লাঠি দিয়ে হাবিলকে বেধড়ক মারধর করেন। এ সময় ধান কাটার আরেক মৌসুমী শ্রমিক আলাল মিয়া (২২) এতে বাধা দিলে তাঁকেও বেধড়ক মারধর করা হয়। স্থানীয় ইউপি সদস্য ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ওইদিন দুপুরে আহত দু’জনকে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। কিন্তু হাবিল মিয়ার ডান হাতের দুটি আঙ্গুল ভেঙে যাওয়ায় ও তাঁর শরীরের অন্যান্য স্থানে আঘাত থাকায় ওইদিনই তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।
এ নিয়ে কৃষক দুদু মিয়ার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাঁর মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
ধর্মপাশা থানার এসআই শেখ মো. রুবেল বলেন, জমির ধান কর্তনের মজুরি নিয়ে দুজন শ্রমিককে বেধড়ক মারধর করার ঘটনাটি শুনেছি। এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভিডিও গ্যালারী

ভিডিও গ্যালারী